35.6 C
Kolkata
Wednesday, May 25, 2022
More

    অমর শিল্পী নন তিনি আসলে অন্নদাতা ঈশ্বর

    দ্যা ক্যালকাটামিরর ব্যুরো: ঈশ্বরের দুনিয়াতে নেপটিজম নেই, তাই হয়তো উকিলের ছেলেই হয়ে উঠতে পেরেছেন এক রক্ত মাংসের ঈশ্বর। হ্যাঁ, কুঞ্জলাল গাঙ্গুলীর ছেলে যদি উকিলই হতেন তাহলে হয়তো দেশ পেতো না ৯০’তম জন্মদিনেও অমলিন ও অপ্রতিরোধ্য কিশোর কুমারকে। তাঁর রঙিন জীবনের নানান দিক আমরা জেনেছি বিভিন্ন পত্র পত্রিকা কিনবা টিভি-নেটের দৌলতে হাতের মুঠোয় থাকা হাইডেফিনিশন ভিডিও ডকুফিচারে। কিন্তু আজ একটু অন্য কিশোর কে জানবো আমরা। কিছুটা সঠিকভাবে বললে পরে, তাঁর ছায়াময়তা, যা তাঁকে করেছে ‘ঈশ্বর’।

    অনুরাগী আর অনুসারী এই দুইয়ের ফারাক অনেক টা। অনুরাগী তার স্বপ্নের মানুষটিকে কামনা করেন, তার নাড়ি-নক্ষত্রের খোঁজ রাখেন কিন্তু ঠিক এর উল্টো দিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে থাকেন অনুসারী। স্বপ্নের মানুষটির মত হয়ে ওঠার জন্যে তার সাধনা নিরলস। আর তাই অনুসারীর কাছে তার সেই মানুষটি ঈশ্বর তুল্য। কিশোর কুমারের অনুরাগী ছিল বহু। বরং বলা চলে সময়ের সাথে সাথে সেই ভিড়ে পায়ে পা মিলিয়েছে স্মার্টফোন হাতে তাঁর থেকে ৬০-৭০ বছর এগিয়ে থাকা নতুন জেনারেশন। কিন্তু কী এমন ক্যারিজমা ছিল কিশোরের ?

    আমাদের কলকাতার নেতাজীনগরের বাসিন্দা গৌতম ঘোষ, যাঁকে মানুষ চেনে জুনিয়র  

    কিশোর কুমার নামে। তিনি কিশোরকে ঈশ্বর মানেন। পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যন্ত গ্রাম এবং রাজ্যের বাইরেও কিশোর কুমারের গান গেয়েই তাঁর জীবনযাপন ছিল। তাঁর বক্তব্য তিনি যতটুকু নামডাক করতে পেরেছেন, তা এই প্রবাদপ্রতিম শিল্পীর গান গেয়েই। তাই সে অর্থে কিশোর কুমার যে তাঁর সংসার চালাতেন, তা বলতে দ্বিধা করেন না গৌতম ঘোষ। আশি ও নব্বইয়ের দশকে প্রবল জনপ্রিয়তা পান গৌতম ঘোষ। কিশোর কুমারের গান   না থাকলে কে চিনত তাঁকে? এমন কী অন্য কোনো শিল্পীর গান গাওয়ার কথা তিনি   কোনোদিন চিন্তাই করেন নি। তাই জীবনে যে মানুষটার দৌলতে তাঁর সব কিছু পাওয়া, সেই কিশোর কে অন্নদাতা ঈশ্বর বলতে গৌতম ঘোষ দ্বিধা করেন নি।

    সব থেকে মজার বিষয় গৌতম ঘোষ যখন স্টেজে গান গাইছেন তখনও বলিউডে বেতাজ বাদশা কিশোর কুমার। কিন্তু কেন লোকে তাঁকেও এত ভালবাসতো?

    সেটার সহজ হিসেব বুঝিয়ে দিতে গৌতম বাবু বলেছেন –“কিশোর কুমারের গান সামনাসামনি শুনতে যদি দশ টাকা লাগে, আমার গাওয়া কিশোরের গান শুনতে সেখানে এক টাকা লাগবে। বা হয়ত একেবারেই বিনামূল্যে আমার অনুষ্ঠান দেখা যাবে। সেই জন্যই লোকে আজও আমাকে ডেকে নিয়ে যায়”। আসলে গৌতম বাবু নিজেকে পুরোহিতের সঙ্গে তুলনা করেছেন, ঈশ্বরের সাথে সাধারণ মানুষের যোগাযোগে তিনিই তো ছিলেন তখন সব থেকে সহজ রাস্তা।

    এই ২০২০ -তে এসেও তাঁর মোবাইলের রিংটোনে কিশোর, কন্ঠে বা কথায় কিশোর, কান্নায় আর স্মৃতিতেও কিশোর। গৌতমদার ফ্ল্যাটের ভেতর ঢুকলে মনে হবে কিশোর কুমারের মিনি মিউজিয়াম! আসলে এই মানুষটি তাঁর গুরুকে ঈশ্বর জ্ঞানে পুজো করেন আজও।

    ভরত যেমন দাদা রামের জুতো জোড়া বুকে জড়িয়ে রেখে পুজো করতেন ঠিক তেমনি কিশোর কুমারের জুতোও রয়েছে গৌতম ঘোষের কাছে। ১৩ অক্টোবর, মানে কিশোর কুমারের মৃত্যুর এক দিন আগে ১৯৮৭ সালের ১২ অক্টোবর কিশোর কুমার যে জুতো পরেছিলেন সেটাই রয়েছে তাঁর কাছে।

    কিভাবে ঈশ্বরের কাছাকাছি পৌঁছলেন গৌতম ঘোষ। তারি স্মৃতিচারণ থেকে জানান গেল। তাঁর   পাশে কোনওদিনই কেউ ছিল না। সবাই গান গাইয়ে নিয়ে পয়সা দেয়নি। তখন তিনি খবরের কাগজ বিক্রি করে, মোমবাতির কারখানায় মোমবাতি তৈরি করে দিন গুজরান করেছেন।

    কিন্তু কিশোরের ছায়া তাঁকে তারা করে বেড়াত। কিশোরের গান গাওয়ার নেশায় ছুটতেন। এমন কী বম্বে তে কিশোরের সাথে করবেন বলে আন্ধেরী স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে ঘুমিয়েছেন। তারপর সকাল হতেই কিশোর কুমারের বাড়ি গৌরীকুঞ্জে চলে যেতেন।

    ঈশ্বরের মত তিনিও প্রথাগত ভাবে গান শেখেননি। তা সত্বেও লতাজি’র সঙ্গে স্টেজ শেয়ার করেছেন! হারমোনিয়াম বাজাতে জানেন না । কান দিয়ে শুনে মন দিয়ে গেয়েছেন। তিনি মনে করেন কিশোর কুমার তাঁকে অনেক কিছু দিয়েছেন। যোগ্যতার থেকে বেশিও হয়তো।

    কিশোর কুমারের কথা উঠলে তাই কেঁদে ফেলেন। নিজের শিল্পী জীবনের বঞ্চনা, অপমান পেয়েছেন অনেক কারণ তাঁর মতে “আমরা নকল করে গাই, আমাদের আর কি! চলে গেলেই হয়!” ‘কন্ঠী’ হওয়ার যন্ত্রণা সত্যিই নিদারুণ! তবুও ঈশ্বরের সাথে সাক্ষাত্ টা আজও ভোলেন নি তিনি।

    গৌতমবাবু ১৯৮৪ সালে মুম্বই গিয়ে কিশোর কুমারের সাথে দেখাকরেন। তাঁকে নকল না করে নিজের মত করে গাইতে বলেন কিশোর। আজও সেই ভাবেই তিনি গান গান। গানটা কিশোর কুমারের হলেও, গায়কী তাঁর নিজস্ব। গৌতমবাবুর মত মানুষ গুলোর জীবনে শুধু, সুর তাল, ছন্দ বা গীতিকবিতা নয়, তাদের প্রতিটা অন্নতে লুকিয়ে আছে ঈশ্বরের ছায়া  হয়ে ‘অন্নদাতা কিশোরকুমার’।

    আজ কিশোর কুমারের ৯০ তম জন্মদিন। তাঁর জন্মদিনে সকল ‘কিশোর কন্ঠি’ গায়কদের মনের  কথা রইল এই লেখাটিতে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    আগামীকাল ভারত বনধের ডাক ! একাধিক দাবি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় কর্মচারী ফেডারেশনের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আবারও ২৫ মে ভারত বনধের ডাক। ভোটে ইভিএম-র ব্যবহার বন্ধ সহ একাধিক বিষয়ে ভারত...

    ডিজিট্যাল লেনদেনে প্রথম সারিতে ভারত , বর্ষপূর্তিতে বড় সাফল্য মোদী সরকারের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ২০১৪ সালে দেশের ক্ষমতায় বসেছিল মোদী সরকার। আগামী ২৬ মে ৮ বছর পূর্ণ করতে...

    জুন মাসে ১২ দিন ছুটি ব্যাংকে ! দেখুন সম্পর্ণ তালিকা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : যদি জুন মাসে ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত কোনও কাজের পরিকল্পনা থাকে, তবে আপনার জন্য দরকারি খবর।...

    ভারতে উৎপাদন বাড়াবে Apple ! কমবে চীন নির্ভরতা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চিন থেকে উৎপাদন নির্ভরতা কমাতে উদ্যোগ নিল Apple। আর ভারতে উৎপাদনে জোর দেওয়ার কথা...

    “ফুল” বদল করলেন ব্যারাকপুরের বাহুবলী নেতা অর্জুন সিং

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ...