30 C
Kolkata
Thursday, February 9, 2023
More

    সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর জন্যে দায়ী প্রিয়াঙ্কা সিং এর ‘ভুয়ো মেডিকেল প্রেসক্রিপশন’ : রিয়া চক্রবর্তী

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু রহস্যে প্রধান অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী আজ ফোরজি, এনডিপিএস আইন, এবং টেলি মেডিসিন অনুশীলন গাইডলাইনস ২০২০ এর অপরাধের জন্য সুশান্ত সিং রাজপুতের বোনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিনেতার অভিযোগ, সুশান্ত সিং এর বোন একটি ‘ভুয়ো প্রেসক্রিপশন’ তৈরি করেছিল আর এই ‘বেআইনী প্রেসক্রিপশন’ অনুসরণ করে ওষুধ খাওয়ার পাঁচ দিনের মাথায় সুশান্ত মারা গিয়েছেন”।

    সোমবার মুম্বাই পুলিশের কাছে রিয়া চক্রবর্তী একটি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন যাতে প্রয়াত অভিনেতার বোন প্রিয়াঙ্কা সিং, রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালের ডাঃ তরুন কুমার এবং অন্যান্য কয়েকজনের বিরুদ্ধে একটি প্রতারণার এফআইআর দায়ের করা হয়। রিয়ার অভিযোগ এরা একটি ‘ভুয়ো মেডিকেল প্রেসক্রিপশন’ যা ওষুধ সহ রোগের বিবরণ বহন করছিল যা ‘বৈদ্যুতিনভাবে (ডিজিটাল উপায়ে) নির্ধারণ করা যায় না।’

    মুম্বাই পুলিশের কাছে করা অভিযোগে রিয়া বলেছেন: “২০২০ সালের ৮’ই জুন সকালে মৃত (সুশান্ত) অবিচ্ছিন্নভাবে তার ফোনে ছিল এবং যখন আমি জিজ্ঞাসা করছিলাম তিনি কী করছেন তখন তিনি আমাকে তাঁর বোন প্রিয়াঙ্কার সাথে যে বার্তাগুলি বিনিময় করছেন তা আমাকে দেখিয়েছিলেন। রিয়া জানায় যে সে এই বার্তাগুলি (মেসেজ) পড়ে আমি হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম কারণ তাঁর বোন প্রিয়াঙ্কা তাকে কিছু ওষুধের একটি তালিকা পাঠিয়েছিলেন। আমি সুশান্তকে বুঝিয়ে দিয়েছিলাম যে তার অবস্থা গুরুতর এবং যে কয়েক মাস ধরে তাঁর চিকিত্সা করা হয়েছিল সেখানে ডাক্তারদের দ্বারা ইতিমধ্যে সে কিছু ওষুধ খাচ্ছিল। যেখানে তাকে অন্য কোনও ওষুধ খাওয়ানো উচিত নয়। সুশান্তের বোনের কোনো মেডিকেল ডিগ্রি নেই। আমি বলি যে আমি এই বিষয়ে একমত নই এবং সুশান্ত জোর দিয়েছিলেন যে তিনি কেবল তাঁর বোনের নির্ধারিত প্রেসক্রিপশনের ওষুধই খাবেন। “

    রিয়া আরও লিখেছেন যে “মর্মাহতভাবে এখন প্রকাশ্যে এসেছে যে তার বোন প্রিয়াঙ্কা পরের দিনই তাকে দিল্লির ডঃ রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতাল থেকে কার্ডিওলজির সহযোগী অধ্যাপক ডক্টর তরুণ কুমার দ্বারা লিখিত একটি প্রেসক্রিপশন প্রেরণ করেছিলেন। আমি বলি যে প্রথম থেকেই প্রেসক্রিপশনটি নকল ও মনগড়া বলে মনে হচ্ছে।” রিয়া আরও অভিযোগ করেন যে ড: কুমার বেআইনি ভাবে “কোন পরামর্শ ছাড়াই” সুশান্ত সিং রাজপুতের কাছে ড্রাগ ও মনোরোগ বিষয়ক আইন, ১৯৮৫ এর অধীনে নিয়ন্ত্রিত নিষিদ্ধ ওষুধ নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

    রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেশিন্দে জানান যে , রিয়া আরও অভিযোগ করেছেন যে ওই মেডিকেল প্রেসক্রিপশনে প্রয়াত অভিনেতাকে দিল্লির হাসপাতালে “বহির্ভূত বিভাগের রোগী” হিসাবে চিত্রিত করা হয়েছিল, যখন বাস্তবে তিনি ৮’ই জুন মুম্বাইতেই ছিলেন। “টেলি মেডিসিন অনুশীলন গাইডলাইনসের ৩.৭.১.৪ এর অধীনে এটি অসদাচরণ।

    অভিযোগটি বান্দ্রা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। যদিও এটি এখনও এফআইআর রূপান্তর করা হয়নি। এদিকে, রিয়া সুশান্ত সিং মৃত্যুর সাথে জড়িত ড্রাগ (নারকোটিক) মামলায় দ্বিতীয় দিন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) কাছে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে হাজির হয়েছিল। রবিবার এই মামলায় প্রথম বার তাকে এজেন্সি (NCB) প্রায় ছ’ ঘন্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    নিখরচায় চক্ষু পরীক্ষা শিবির

    কলকাতা ক্রীড়া সাংবাদিক ক্লাবের অর্থাৎ সিএসজেসি-‌র প্রচেষ্টায় এবং নাগরিক স্বাস্থ্য সঙ্ঘের সহযোগীতায় মঙ্গলবার সিএসজেসিতে কম্পিউটারাইজড চক্ষু পরীক্ষা শিবির অনুষ্ঠিত হল। ক্রীড়া সাংবাদিকদের...

    সবুজ মেরুনের ঘাড়ের‌ ওপর নি:‌শ্বাস বেঙ্গালুরুর :‌ রাজকুমার মণ্ডল

    জামশেদপুর ম্যাচে জয়ে ফিরতে মরিয়া এটিকে মোহনবাগান। বেঙ্গালুরুর কাছে হের একধাপ নীচে এটিকে মোহনবাগান। ১৬ ম্যাচে ২৭ পয়েন্টে পাঁচ নম্বরে সবুজ মেরুন।...

    নাগপুর টেস্টে তিন স্পিনারে নামছে ভারত :‌ রাজকুমার মণ্ডল

    ভারত-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টেস্ট। যুদ্ধকালীন প্রস্তুতিতে দুই দলই। বর্ডার-গাভাসকর ট্রফি শুরুর আগে ভারতের সহ অধিনায়ক কেএল রাহুলের মুখে তিন স্পিনার নিয়ে খেলার পরিকল্পনার...

    বাড়ির দেওয়ালে ছবি সাজানোর আগে বাস্তুর নিয়ম না জানলে বাড়তে পারে সমস্যা!

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো :- লোকেরা তাদের ঘর সাজানোর জন্য পারিবারিক ছবি রাখে। আসলে, বাড়ির দেয়ালে সজ্জিত ফটোগুলি পারস্পরিক ভালবাসাকে প্রতিফলিত করে।...

    শান্তিতে ঘুমাতে চাইলে এই জিনিসগুলো বিছানার অন্য পাশে রাখবেন না!

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো :- আমাদের জীবনে বাস্তুশাস্ত্রের অনেক গুরুত্ব রয়েছে। বাস্তুতে এমন অনেক নিয়ম বলা হয়েছে যা আমাদের জীবনের সমস্যাগুলি কাটিয়ে...