34 C
Kolkata
Wednesday, August 17, 2022
More

    “PRAY FOR HYDRABAD” বর্ষাসুরের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়দ্রাবাদ, আগামী তিন দিন খুবই বিপদের

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: গত সপ্তাহে হায়দ্রাবাদে ব্যাপক বৃষ্টিপাতের পর তেলেঙ্গানায় ৭০ জন নিহত হয়েছে, অন্তত তিনটি প্রধান হ্রদ ভেঙ্গে পড়েছে, যার ফলে শহরের অনেক জায়গায় ভারী বন্যা এবং বিপর্যয় ঘটেছে, প্রশাসন এখন আরো বৃষ্টির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগামী তিন থেকে তিন দিন ভারী বৃষ্টির সতর্কতা ও সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

    গ্রেটার হায়দ্রাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (জিএইচএমসি) এলাকায় ৩৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ওল্ড সিটি এলাকার বেশ কিছু অংশ প্লাবিত হচ্ছে, যেখানে পুলিশ, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, পৌরসভা এবং পুলিশ পাতলা এবং সারারাত ধরে কাজ করছে।

    শনিবার সন্ধ্যায় দ্বিতীয় বৃষ্টিতে দুই শিশুসহ ছয়জন মারা যায়। গত মঙ্গল এবং বুধবারের বৃষ্টিতে সৃষ্ট ধ্বংসথেকে আরো মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে, যার মধ্যে একটি গাড়ির ভিতর থেকে একটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

    তেলেঙ্গানার মন্ত্রী কেটি রামা রাও আজ বলেন “আমরা প্রাণহানি কমানোর চেষ্টা করছি। তাই দয়া করে খালি করার জন্য সহযোগিতা করুন, শুধু উঁচু তলায় যাবেন না।” মন্ত্রী আরো বলেন যে “শহুরে বন্যা এখন একটি বাস্তবতা”।

    “জিএইচএমসিতে আমাদের ১৮টি নৌকা আছে। অন্ধ্রপ্রদেশ আমাদের কয়েকজনকে পাঠাচ্ছে। অন্যান্য সংস্থাও (নৌকা পাঠাচ্ছে), তাই আটকে পড়া দের উদ্ধারের জন্য আমাদের হাতে ৫০ টি নৌকা থাকবে। “অবৈধ অনুপ্রবেশের কথা অস্বীকার করার কোন কারণ নেই। হ্রদের পৃষ্ঠতল আবর্জনার উপনিবেশে পরিণত হয়েছে, ঝড়ের জল নিষ্কাশনে আধুনিকীকরণ প্রয়োজন, সব অবরুদ্ধ হয়ে আছে। আমরা এই সমস্যাগুলির একটি স্থায়ী সমাধান খুঁজতে চাই। তবে আমাদের তাৎক্ষণিক অগ্রাধিকার হচ্ছে জীবন বাঁচানো,” তিনি বলেন।

    গত সপ্তাহে, তেলেঙ্গানার রাজধানী এক শতাব্দীরও বেশি সময় আগে অক্টোবর মাসে একদিনের জন্য সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার সাক্ষী হয়, যেখানে শহর এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় প্রায় ২০ সেন্টিমিটার থেকে ৩২ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

    আরো বৃষ্টি জনিত প্রস্তুতির একটি কারণ হচ্ছে হায়দ্রাবাদের আবহাওয়া স্টেশনে ডপলার রাডার, যা নিখুঁতভাবে এলাকা অনুযায়ী বৃষ্টির কোয়ান্টাম ভবিষ্যদ্বাণী করে, আপাতদৃষ্টিতে ভোল্টেজের ওঠানামার কারণে তা এখন মেরামত করা হচ্ছে। গত সপ্তাহে ব্যাপক বৃষ্টিপাতের প্রথম পশলাতে অন্তত ৫০ জন লোক মারা গেছে, যা দিনের পর দিন চলতে থাকে। রাজ্যে মূল্যায়িত ক্ষতি ৬,০০০ কোটি টাকার বেশি।

    শনিবার রাতের বন্যার দৃশ্য দেখা যাচ্ছে যে রাস্তাগুলো জলেতে ডুবে যাওয়ার সাথে সাথে যানবাহন ভেসে যাচ্ছে। রবিবার, বন্যার জল তাদের বাড়িতে প্রবেশ করার পর মানুষকে তাদের ছাদের ওপরে উঠে থাকতে দেখা যায়।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    নেতাজির চিতাভস্ম দেশে ফেরানো হোক , দাবি নেতাজী কন্যার

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : তার অন্তর্ধান রহস্য কি সমাধান হবে ? সেই বিষয়েই এবার বড় পদক্ষেপের কথা বললেন,...

    ভারতীয় ফুটবলের কালো দিন ! AIFF-কে নির্বাসিত করল FIFA

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ভারতীয় ফুটবলে কালো দিন। অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনকে নির্বাসিত করল ফিফা। ফিফার তরফে প্রেস...

    আজ ভারত ছাড়া আর কোন কোন দেশের স্বাধীনতা দিবস ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আজ ১৫ অগাস্ট আমাদের দেশের ৭৬তম স্বাধীনতা দিবস। অনেক আন্দোলন আর প্রাণ বিসর্জনের বিনিময়ে...

    দেশবাসীর গর্বের মুহূর্ত , মহাকাশে উড়ল জাতীয় পতাকা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কোথাও জলের রঙ হল গেরুয়া-সাদা-সবুজ। ফুটে উঠেছে অশোক চক্র। কোথাও আবার জলপ্রপাতে ফুটে উঠেছে...

    মেয়েরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ , জাতির উদ্দেশ্যে ভাষনে বললেন রাষ্ট্রপতি

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : স্বাধীনতার আগের মুহূর্তের সন্ধেয় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলের দেশের নব নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।...