23 C
Kolkata
Thursday, January 27, 2022
More

    ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপ ‘ব্যবহারকারীর তথ্য’ কতটা সুরক্ষিত, কী জানালো কেন্দ্রীয় সরকার

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো:’আরোগ্য সেতু’ অ্যাপের ডেটা সুরক্ষা নিয়ে ওঠা RTI প্রশ্নের উত্তর দিতে না পারায় বিতর্ক দানা বাঁধতেই তড়িঘড়ি আসরে নামলো কেন্দ্র। কেন্দ্র জানিয়েছে অতিমারী সঙ্কটে সরকারি-বেসরকারি সহযোগিতায় স্বচ্ছভাবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ তৈরি করা হয়েছিল।

    সরকারের তরফে বলা হয় অতিমারীর আবহে, ‘‌মাত্র ২১ দিনের রেকর্ড সময়ে আরোগ্য সেতু অ্যাপ তৈরি করা হয়েছিল। অতিমারী সঙ্কটে লকডাউনের সময় একটি ভারতীয় কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপের অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল। সেই চাহিদা পূরণ করতেই দেশের শিল্প, শিক্ষা জগত্‍ এবং সরকারের বিভিন্ন আধিকারিকরা দিনরাত কাজ করে আরোগ্য সেতুর মতো একটি সুরক্ষিত অ্যাপ তৈরি করেছিল।

    কেন্দ্র তাদের বিবৃতিতে আরও জানায় যে দেশজুড়ে করোনা ঠেকাতে আরোগ্য সেতু অ্যাপের ভূমিকা নিয়ে কোনও সন্দেহ থাকাই উচিত নয়। এই অ্যাপটি তৈরির কাজে যারা যুক্ত, তাদের নাম পাবলিক ডোমেইনে আগে থেকেই রয়েছে।

    উল্লেখ্য, করোনা মোকাবিলার অন্যতম হাতিয়ার এই আরোগ্য সেতু অ্যাপ। কেন্দ্র বারবার এই অ্যাপ ব্যবহারের ওপর জোর দিয়েছে। আরোগ্য সেতুর ওয়েবসাইটে লেখা, অ্যাপটি তৈরি করেছে ন্যাশনাল ইনফরমেটিক্স সেন্টার এবং কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক। কিন্তু এই দুই বিভাগের কাছে আরটিআই করে সেকথাই জানতে চাওয়া হয়েছিল। দু’‌টি বিভাগই অস্বীকার করেছে। জানিয়েছে, তারা অ্যাপটি তৈরি করেনি। তাহলে তৈরি করল কে?‌ সেই নিয়েই ধন্দ।

    আর এই ধন্দ নিরসন করতে কেন্দ্রকে নোটিস পাঠাল কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন। আরটিআই-এর শীর্ষ কর্তা নোটিসে লিখেছেন, ‘‌কর্তৃপক্ষ তথ্য দিতে অস্বীকার করলে তা মানা যায় না।’‌ আরও অভিযোগ, ‘‌চিফ পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারদের মধ্যে কেউই বলতে পারেননি, এই অ্যাপ কে তৈরি করেছে। তাহলে প্রাথমিক ফাইলগুলো কোথায়। যা খুবই হতাশজনক।’‌

    প্রসঙ্গত, সমাজকর্মী সৌরভ দাস আরোগ্য সেতু’র তথ্য সংরক্ষণ সংক্রান্ত ধন্দ নিয়ে কমিশনে নালিশ জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, আরটিআই করে এই অ্যাপ সম্বন্ধে বিশ্বাসযোগ্য কোনও তথ্য মিলছে না। তার পরেই নড়চড়ে বসে তথ্য কমিশন। এই বিষয়টি সামনে আসতেই ওই বিভাগগুলিকে ২৪ নভেম্বর কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশনের কাছে হাজিরা দিতে হবে।

    বৈশ্বিক অতিমারি আবহে করোনা সংক্রমণ সম্পর্কে নানান তথ্য দেয় আরোগ্য সেতু অ্যাপ। এমনকি আপনার আশপাশে বা আশেপাশের অঞ্চলে কোথাও কোনো করোনা রোগী রয়েছে কি না, তা জানা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে। এমনটাই দাবি করেছিল কেন্দ্র সরকার। এমনকী, ওই অ্যাপটি ট্রেনে এবং বিমানে সফরের সময় মোবাইলে থাকা বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশও দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    দেশে বাড়ল করোনা সংক্রমণ , কমেছে মৃত্যু

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আবারও বাড়ল দেশের কোভিড সংক্রমণ। তবে কমেছে মৃত্যুর সংখ্যা। সূত্রে খবর, বিগত ২৪ ঘণ্টায়...

    সপ্তাহান্তে ফিরবে জাঁকিয়ে শীত ! ফেব্রয়ারিতে বসন্তের ছোয়া

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সপ্তাহান্তে ফিরবে শীত। এমনই পূর্বাভাস দিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। উত্তর ও দক্ষিণ দুই বঙ্গেই...

    রাজ্যে কিছুটা বাড়ল করোনা গ্রাফ , বাড়ছে সুস্থতার হার

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ফের সামান্য হলেও বাড়ল রাজ্যের করোনা গ্রাফ। উদ্বেগে রাখছে দৈনিক মৃত্যু। বুধবারও দৈনিক কোভিড...

    করোনা সংক্রমনের লক্ষণ ফুটে উঠতে পারে ত্বকে ? কি বলছেন বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা সংক্রমনের লক্ষণ শুধু শ্বাসযন্ত্রের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। শরীরের বিভিন্ন অংশে ফুসকুড়ি, মাথাব্যথা, পেশী...

    করোনা আবহে বাচ্চাদের সাধারণ সর্দি-কাশি হলে কি করবেন ? দেখুন কেন্দ্রের নির্দেশিকা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : বাচ্চাদের সাধারণ সর্দি-কাশি হলে ব্যস্ত হয়ে পড়েন বাবা-মায়েরা। করোনা আবহে সামান্য অসুস্থতাও চিন্তা বাড়াচ্ছে...