25 C
Kolkata
Monday, March 20, 2023
More

    ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজত অর্ণব গোস্বামী’র, মিলল না জামিন, ধোপে টিকলো না পুলিশি নিগ্রহের গল্প

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: গতকাল সকাল সকাল গ্রেপ্তার হন অর্ণব গোস্বামী। দু বছর আগের একটি মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু কাল তাঁকে আদালতে তোলার পর খারিজ হয়ে গেল পুলিশের বিরুদ্ধে নিগ্রহের ‘রিপাবলিক’ অভিযোগ। এমনকি বছরদুয়েক আগে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার মামলাতেও মিলল না জামিন। শুধু একটাই স্বস্তি ‘দেশের সর্বোচ্চ বেতন ভোগী সাংবাদিকের’ যে তাঁকে পুলিশি হেফাজতে পাঠানো হল না। আলিবাগের আদালত ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দিল ।

    এর আগে দিনভর চূড়ান্ত নাটকের সাক্ষী থাকল মহারাষ্ট্র। বুধবার সকালেই রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফের বাড়িতে যায় পুলিশের একটি দল। আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে তাঁকে তাঁর বার থেকেই গ্রেফতার করা হয়।

    উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে আত্মহত্যা করেছিলেন ৫৩ বছরের ইন্টিরিয়র ডিজাইনার অন্বয় নায়েক এবং তাঁর মা কুমুদ নায়েক। আলিবাগে কবীর গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁদের দেহ উদ্ধার করা হয়েছিল। সেই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন অন্বয়ের স্ত্রী অক্ষতা (৪৮)। তারইমধ্যে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছিল পুলিশ। তাতে অভিযোগ করা হয়েছিল, অর্ণব গোস্বামী, ফিরোজ শেখ এবং নীতেশ সারদার থেকে ৫.৪ কোটি টাকা পেতেন অন্বয়। কিন্তু তা দেওয়া হয়নি। সেজন্য আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন। পরে অর্ণব, ফিরোজ ও নীতিশের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মামলা রুজু করেছিল পুলিশ।

    তবে ওই বছরই সেই মামলা বন্ধ করে দেয় রায়গড়ের পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছিল, যে তিনজনের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে, তাঁদের বিরুদ্ধে জোরালো কোনও প্রমাণ মেলেনি। পরে আলিবাগ পুলিশের বিরুদ্ধে তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ তুলে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অন্বয়ের মেয়ে আদনিয়া। তারপর চলতি বছরের মে’তে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, অন্বয় ও তাঁর মা’র মৃত্যুর ঘটনায় নতুন করে তদন্ত শুরু হবে।

    গতকাল গ্রেফতারির পর দুপুর অর্ণবকে আলীগড় আদালতে তোলা হয়। তিনি অভিযোগ করেন, পুলিশ তাঁকে শারীরিকভাবে নিগ্রহ করেছে। সেজন্য তাঁর হাতেও চোটও লেগেছে। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে বিকেল সাড়ে পাঁচটাতে আবার আদালতে তোলা হয়।

    এরপর পুলিশের তরফে অর্ণবকে ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠানোর আর্জি জানানো হয়েছিল। তবে দিনভর ম্যারাথন শুনানি শেষে রাত ১১ টার পর আদালতে পুলিশের সেই আর্জি গৃহীত হয়নি। কাল রাতে আদালত জানায় আগামী ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত বিচারবিভাগীয় হেফাজতে থাকবেন অর্ণব। একইসঙ্গে অপর দুই অভিযুক্তকেও গ্রেফতার করে আদালতে তোলা হয়। তাঁদেরও ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

    বুধবারের রাতটা পুলিশি হেফাজতে কাটাতে না হওয়ায় কিছুটা স্বস্তিতে থাকলেন অর্ণব। যা অর্ণবের আইনজীবী গৌরব পারকের তাঁদের ‘বড় জয়’ বলে দাবি করেছেন। এরইমধ্যে সোমবার অর্ণবের বিরুদ্ধে আরও একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে। তাতে অভিযোগ করা হয়েছে, পুলিশের অফিসিয়াল কাজে বাধা দিয়েছেন অর্ণব। সেই এফআইআরে অর্ণবের স্ত্রী’র নামও নথিভুক্ত রয়েছে। টিআরপি স্ক্যাম সহ মোট তিনটি মামলা অর্ণব কিভাবে সামলান সেটাই এখন ‘nation wants to know’।

    ইতিমধ্যে তিনি-সহ বাকিদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া এফআইআর খারিজের আর্জি জানিয়ে বম্বে হাইকোর্টে আবেদন দাখিল করেছেন অর্ণব। তা সম্ভবত আগামিকাল শোনা হবে। সূত্রের খবর, জামিনের আর্জিও জানানো হয়েছে। সেটার শুনানি আগামিকাল হতে পারে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    সরে গেল ‘এটিকে’ , পরের মরশুমে ঝড় তুলতে আসছে ‘মোহনবাগান সুপার জায়ান্টস’

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে বড় ঘোষণা করলেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। মোহনবাগানের নামের শুরু থেকে সরে গেল...

    ভারতসেরা ‘মোহনবাগান’ ! বাঙালির গর্বের দিন

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চাপ বনাম পাল্টা চাপ। পেনাল্টি বনাম পাল্টা পেনাল্টি। অফুরান দৌড় আর স্কিলের ফুলঝুরি দেখাতে...

    ISL চ্যাম্পিয়ন এটিকে মোহনবাগান

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আই এস এল ফাইনালে রুদ্ধশ্বাস জয় ছিনিয়ে নিলো এটিকে মোহনবাগান । বেঙ্গালুরু এফসিকে টাইব্রেকারে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হলো...

    বাড়িতে আনুন বেশকিছু হোমিওপ্যাথি ঔষধ , পাবেন বহু সমস্যা মুক্তি

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : হোমিওপ্যাথি এক পুরনো চিকিৎসা পদ্ধতি। আয়ুর্বেদের সঙ্গেও এই চিকিৎসা পদ্ধতির বেশ কিছু মিল...

    বড় বড় মার্কিন ব্যাংকের পতন ! আসছে মহামন্দা ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্ক এবং সিগনেচার ব্যাঙ্ক – পর পর দুই বড় মাপের মার্কিন ব্যাঙ্কের...