20 C
Kolkata
Monday, January 17, 2022
More

    লাদাখ থেকে সেনা প্রত্যাহারে ‘চীনের অনীহা’ মানতে নারাজ বেজিং

    দ্যা ক্যালকাটামিরর ব্যুরো: ভারত এবং চীন একমত হয়ে লাদাখের নির্ধারিত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে ‘সম্পূর্ণ এবং প্রাথমিক সেনা প্রত্যাহার’এর বিষয়টি নিউ দিল্লি ঘোষণা করার ঠিক ৪ দিন পর মঙ্গলবার বেজিং বলেছে সামরিক ও কূটনৈতিক মাধ্যমে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের পরে উভয় দেশের সীমান্ত সেনারা “বেশিরভাগ অঞ্চল থেকে নিবন্ধিত সেনা প্রত্যাহার করেছে”।

    সম্ভবত এই সপ্তাহের শেষের দিকে, দুই সেনাবাহিনীর কর্পস কমান্ডারদের মধ্যে পঞ্চম দফার আলোচনার আগে,চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রকের এই বিবৃতিতে ভারত সরকার বা ভারতীয় সেনাবাহিনীর উভয় পক্ষ থেকে কোনও আনুষ্ঠানিক নিশ্চয়তা বা প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

    প্রসঙ্গত উল্লেখ্য লাদাখের প্যাংগ তসো থেকে সেনা প্রত্যহারে অনীহা দেখানোর কারণেই উল্লিখিত পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয় পর্যবসিত হয় এবং এটিই সম্ভবত কর্পস কমান্ডারদের মধ্যে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হতে পারে। মে মাসের প্রথম দিকে এই হ্রদের উত্তর তীরে চীনা ও ভারতীয় সৈন্যদের মধ্যে সংঘর্ষ হওয়ার পরে সামরিক অবস্থান শুরু হয়েছিল।

    প্যাংগ তসো, লাদাখ

    বেজিংয়ে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন বলেছেন: “সম্প্রতি চীন ও ভারত কূটনীতিক ও সামরিক চ্যানেলগুলির মাধ্যমে প্রায়শই যোগাযোগ করেছে। ইতিমধ্যে চীন-ভারত সীমান্ত বিষয়ক পরামর্শ ও সমন্বয়ের জন্য কার্যনির্বাহী ব্যবস্থার অধীনে চার দফা কমান্ডার-স্তরের আলোচনা এবং তিনটি বৈঠক হয়েছে। “

    “যেহেতু বেশিরভাগ সীমান্ত এলাকায় সেনারা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে, তাই স্থলভাগ পরিস্থিতি নিম্নমুখী হচ্ছে এবং উত্তেজনা হ্রাস পাচ্ছে। বর্তমানে উভয় পক্ষই সক্রিয়ভাবে এই স্থলভাগ সম্বন্ধিয় অসামান্য সমস্যা সমাধানের জন্য পঞ্চম দফার কমান্ডার-স্তরের আলোচনার প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমরা আশা করি, ভারতের পক্ষ চীনের সাথে একই লক্ষ্যে কাজ করবে, উভয় পক্ষের ঐকমত্য বাস্তবায়ন করবে এবং যৌথভাবে সীমান্তে শান্তি ও প্রশান্তি বজায় রাখবে।”

    পরিস্থিতি এখন সহজ ও শীতল হওয়ার দিকে এগোচ্ছে।

    – ওয়াং ওয়েনবিন (চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র)

    গত শুক্রবার, ভারত-চীন সীমান্ত বিষয়ক পরামর্শ ও সমন্বয়ের জন্য ওয়ার্কিং মেকানিজমের ভার্চুয়াল বৈঠকের পর, নয়াদিল্লি বলেছে যে উভয় পক্ষই “শীঘ্রই এবং সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞার” বিষয়ে একমত হয়েছে।

    ডাব্লুএমসিসির বৈঠকটি পঞ্চম দফায় দুই কর্পস কমান্ডারের আলোচনার মঞ্চ স্থাপন করেছে – যেখানে তারা ৬ জুন এখনো অবধি চারবার বৈঠক করেছেন। এই সব আলোচনায়- প্যানগং তসো এবং গোগড়ার প্যাটারলিং পয়েন্ট ১৭A এতে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করতে আলোচনা হয়েছিল। অন্য দুটি সংঘর্ষ কেন্দ্র যথা পিপি ১৪ (গ্যালওয়ান ভ্যালি) এবং পিপি ১৫ (উষ্ণপ্রস্রবন) ইতিমধ্যেই দু দেশের সেনা সরে গিয়েছে।

    প্যাংগ তসোতে, চীনা সেনারা ৮ টি ফিঙ্গার থেকে ৮ কিলোমিটার পশ্চিমে উত্তর তীরে ৪ টি ফিঙ্গার পর্যন্ত পৌঁছেছিল যা ভারতের মতে LAC চিহ্নিত। যদিও নিষ্ক্রিয়করণ ও প্রত্যাহার প্রক্রিয়াটির অংশ হিসাবে, চীনারা ফিঙ্গার ৪ বেস অঞ্চলটি খালি করে ফিঙ্গার ৫ এর দিকে এগিয়ে যাওয়ার কথা কিন্তু তারা এখনও ফিঙ্গার ৪’এর প্রান্তিক অঞ্চলে অবস্থান করে রয়েছে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    মধ্যপ্রাচ্যে আবারও যুদ্ধের ইঙ্গিত !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আবারও মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধের দামামা। সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর রাজধানী আবু ধাবিতে জোড়া হামলা চালাল ইরান...

    শিশুদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কতটা ? দেখুন কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রাপ্তবয়স্কদের অধিকাংশের করোনা টিকা হলেও ভারতে শিশুদের পর্যন্ত করোনা টিকাদান হয়নি। ফলে তাদের মধ্যে...

    দেশে শীঘ্রই শুরু হচ্ছে ১২-১৪ বছর বয়সীদের টিকাকরণ !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : দেশে শিশুদের টিকাদানের কর্মসূচি একধাপ এগোল। এবারে দেশে শুরু হতে চলেছে ১২ থেকে ১৪...

    দেশে নিম্নমুখী দৈনিক করোনা সংক্রমণ , চিন্তা বাড়াচ্ছে সক্রিয় রোগী

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সোমবার দেশে সামান্য কমল কোভিডের দৈনিক সংক্রমণ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এদিনের বুলেটিন অনুযায়ী দেশে...

    শীত প্রেমীদের জন্য সুখবর ! ঝোড়ো ব্যাটিং করতে ফিরল শীত

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : পশ্চিমী ঝঞ্ঝা কেটে অবশেষে রোদ ঝলমলে আকাশ। এক ধাক্কায় তিন নামল কলকাতার তাপমাত্রা। পারদ পতনে...