26 C
Kolkata
Thursday, May 26, 2022
More

    NEET ও JEEE নিয়ে সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানাতে কালো মুখশে মুখ ঢাকছে পড়ুয়ারা

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: করোনাভাইরাসের আবহে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিতর্ক চরমে। সর্বভারতীয় ডাক্তারি ও ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রবেশিকা ‘নিট’ এবং ‘জেইই’ (মেন)-সহ অন্যান্য প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা আয়োজনকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রের প্রতি ক্ষোভে ফেটে পড়েছে পড়ুয়ারা। করোনা আবহে যখন বাড়ি থেকে বাইরের বেরনো দায়। বন্ধ হয়ে রয়েছে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সেখানে কিছুটা জোর করেই NEET এবং JEE’র অ্যাডমিট কার্ড প্রকাশিত হয়েছে। বুধবার NTA হল টিকিট প্রকাশ করেছে তাদের নিজেদের ওয়েবসাইট। যেখানে পরীক্ষার্থীদের রোল নম্বর ও নির্ধারিত সেন্টারের নামে লেখা আছে।

    অন্য দিকে, সরকারি এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার অর্থাত্‍ ২৭ শে আগস্ট থেকেই প্রতিবাদ গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পরীক্ষার্থীরা। সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানাতে বাড়ি থেকেই কালো পতাকা দেখিয়ে, কালো ব্যান্ড বেঁধে চলবে বিক্ষোভ প্রদর্শন। পড়ুয়াদের রোষের জেরে সরকার পরীক্ষার তারিখ পুনর্বিবেচনা করতে পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। যদিও এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর যুক্তি – বহু ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকরা চেয়েছিলেন বলেই এই পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে। জেইই (JEE) মেন ১ থেকে ৬ সেপ্টেম্বর ও (NEET) নিট ১৩ সেপ্টেম্বর হওয়ার কথা।

    উল্লেখ্য, মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল বলেন, ‘আমরা কেন নিট ও জেইই পরীক্ষার আয়োজন করছি না, এই প্রশ্ন করে ক্রমাগত আমাদের উপর চাপ সৃষ্টি করে গিয়েছেন অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীরা। ছাত্রছাত্রীরা খুবই উদ্বিগ্ন ছিল। তাঁদের আর কতদিন পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে, এই নিয়ে তাঁরা চিন্তায় ছিল। আমরা ছাত্রছাত্রীদের সাথে আছি। শিক্ষার থেকেও তাঁদের জীবনের সুরক্ষাই আমাদের কাছে অধিক গুরুত্বপূর্ণ।’

    যদিও শিক্ষামন্ত্রীর এ কথায় সায় নেই অধিকাংশ পরীক্ষার্থীর। করোনা আবহে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে দেশজুড়ে বৃহস্পতিবার থেকে বাড়ি থেকেই বিক্ষোভ জানাবেন পড়ুয়ারা। সকাল ৮টা থেকে পরীক্ষা পিছোনোর দাবি জানিয়ে বাড়ি থেকেই কালো পতাকা দেখানো হবে। হাতে, কপালে বাঁধা হবে কালো ব্যান্ড। মুখে পরা হবে কালো মাস্ক। ফেসবুক প্রোফাইল কালো করে দেওয়া হবে। পড়ুয়াদের চাপের মুখে সরকার পিছু হঠে কি না বা পরীক্ষার দিন বদল হয় কি না সে দিকেই তাকিয়ে সব মহল।

    এই বিষয় নিয়ে সরকার বনাম বিরোধীদের বিবাদ চরমে পৌঁছেছে। পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রাখছে না কেন্দ্র। এমনকি পরীক্ষা পিছোনোর জন্য বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও কিছুতেই কান দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করছেন বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতে বিরোধীদের পরবর্তী কর্মসূচি স্থির করতে বুধবার বৈঠকে বসেছেন কয়েকটি অ-বিজেপি শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। মূলত: আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও জাতীয় কংগ্রেস এর সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর যৌথ আহ্বানে এই ভিডিয়ো বৈঠকে মহারাষ্ট্র, পাঞ্জাব, ছত্তিশগড়, ঝাড়খণ্ড ও পুদুচেরির মুখ্যমন্ত্রীরা যোগ দিয়েছেন।

    আসলে নিট, জেইই-র মতো পরীক্ষা নিয়ে নিজেদের রাজ্যের বক্তব্য তুলে ধরে মোদী সরকারকে এই ইস্যুতে চাপে ফেলতে চাইছে বিরোধীরা। যদিও এই ইস্যুতে বিরোধী শিবির দ্বিধাবিভক্ত। অ-বিজেপি শাসিত বেশ কয়েকটি রাজ্য আবার পরীক্ষা নেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্রের সঙ্গে সহমত। তা ছাড়া সর্বোচ্চ আদালত (সুপ্রীম কোর্ট) পরীক্ষায় সায় দেওয়ায় এ নিয়ে কতদূর এগোনো যাবে, সে ব্যাপারেও অনেক রাজ্য সন্দিহান।

    পড়ুয়াস্বার্থে বিষয়টিকে নিয়ে মমতা ব্যানার্জী এতটাই চিন্তিত যে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রধানমন্ত্রীকে এক ইস্যুতে দু’টি চিঠিও পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি। গত সোম ও মঙ্গলবারের দুটি চিঠিতেই পড়ুয়াদের স্বার্থে নিট, জেইই পিছিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন শ্রীমতি ব্যানার্জী। এটাই প্রথম নয়, এর আগে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ে ইউজিসি-র নির্দেশিকা বাতিলের দাবি জানিয়েও প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন তিনি।

    উল্লেখ্য, এ দিনের চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন – বারংবার আবেদন সত্ত্বেও কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হচ্ছে না। যদিও ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির (এনটিএ) তরফে মঙ্গলবারই রাজ্য সরকার একটি চিঠি পেয়েছে। তাতে ১’ লা সেপ্টেম্বর থেকে জেইই (মেন) আয়োজনে যাবতীয় প্রস্তুতি রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যার প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রীর এই পাল্টা চিঠি। তাঁর কথায়, ‘এনটিএ-র এই পরীক্ষা নেওয়ার জন্যে নির্দেশমূলক চিঠি খুবই চিন্তার ও যথেষ্ট উদ্বেগের’। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী মমতা ব্যানার্জী সকল অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রীদের এক যোগে এই ইস্যুতে পুনরায় সুপ্রীম কোর্টে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    ফের বেসরকারিকরণের পথে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ! তালিকায় আর কোন কোন সংস্থা ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ফের বেসরকারিকরণের পথে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা। এবার হিন্দুস্তান জিঙ্ক। দেশের বৃহত্তম ইন্টিগ্রেটেড জিঙ্ক প্রস্তুতকারী...

    ‘মাঙ্কিপক্স’ মোকাবিলায় কতটা প্রস্তুত ভারত ? কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা মহামারির বিপদ কাটতে না কাটতেই শিয়রে অন্য বিপদ, ‘মাঙ্কিপক্স’ সংক্রমণ। WHO-র সাম্প্রতিকতম তথ্য...

    ত্রাতা সেই মুখ্যমন্ত্রী , নতুন ইনভেস্টর পেল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ত্রাতা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ইনভেস্টর সমস্যা মিটে গেল ইস্টবেঙ্গলে। লাল-হলুদে ইনভেস্টর হিসাবে...

    করোনা মোকাবিলায় মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ বাইডেন , দুষলেন চীনকে

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কয়েকদিন আগে WHO জানিয়েছিল, কোভিডে মৃতের সংখ্যা চেপে গিয়েছে ভারত। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো...

    আগামীকাল ভারত বনধের ডাক ! একাধিক দাবি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় কর্মচারী ফেডারেশনের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আবারও ২৫ মে ভারত বনধের ডাক। ভোটে ইভিএম-র ব্যবহার বন্ধ সহ একাধিক বিষয়ে ভারত...