16 C
Kolkata
Monday, January 17, 2022
More

    কৃষি খাতের সংস্কার বিল পাশের একদিন পরেই গম সহ আরও পাঁচটি রবি শস্যের এমএসপি বাড়লো

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো:সোমবার সরকার গমসহ ছয়টি রবি ফসল কেনার ন্যূনতম মূল্য ছয় শতাংশ পর্যন্ত বাড়িয়েছে। যা কৃষকদেরকে এমএসপি ভিত্তিক ক্রয়-বিক্রয় সম্পর্কে একটি শক্তিশালী বার্তা দেয়।

    কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর লোকসভায় বলেন, রবি মৌসুমের সবচেয়ে বড় ফসল গমের এমএসপি (ন্যূনতম সহায়ক মূল্য) কুইন্টাল প্রতি ৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১,৯৭৫ টাকা করা হয়েছে। এছাড়া ডাল (মাসুর), গ্রাম, যব, সানফ্লাওয়ার এবং সরিষা বীজের /রেপ সিডের এমএসপি বাড়ানো হয়েছে।

    রকারের এমএসপি-ভিত্তিক ক্রয় কার্যত শেষ হয়ে যেতে পারে এই আশঙ্কায় কংগ্রেস এবং তৃণমূল কংগ্রেসের মত বিরোধী দলের প্রবল বিক্ষোভ স্বত্ত্বেও ক্ষমতাসীন এনডিএ জোটের সংসদ দুটি কৃষি খাতের সংস্কার বিল অনুমোদন করার একদিন পর এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

    সংসদে পাস হওয়া কৃষক উৎপাদন ব্যবসা ও বাণিজ্য (পদোন্নতি ও সুবিধা) বিল, ২০২০ এবং মূল্য নিশ্চয়তা ও খামার সেবা বিল ২০২০ এর কৃষক (ক্ষমতায়ন ও সুরক্ষা) চুক্তি বিলটির বিরুদ্ধে পাঞ্জাব, হরিয়ানা এবং অন্যান্য রাজ্যের কৃষক দলগুলোও প্রতিবাদে সামিল হয়েছে।

    তোমর বলেন, সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাপতিত্বে ক্যাবিনেট কমিটি অন ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স (সিসিইএ) এই ছয়টি রবি ফসলের বর্ধিত এমএসপি অনুমোদন করেছে।

    ২০২০-২১ ফসল (জুলাই-জুন) এবং ২০২১-২২ সালের বিপণন মৌসুমের এই ছয়টি রবি ফসলের জন্য এমএসপি বৃদ্ধির ঘোষণা করে তোমর বলেন, গ্রামের এমএসপি কুইন্টাল প্রতি ২২৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫,১০০ টাকা করা হয়েছে। যবের এমএসপি কুইন্টাল প্রতি ৭৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১,৬০০ টাকা করা হয়েছে। ডাল এমএসপি প্রতি কুইন্টাল ৩০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫,১০০ টাকা করা হয়েছে।

    সরিষা/ রেপ বীজের এমএসপি প্রতি কুইন্টাল ২২৫ টাকা থেকে ৪,৬৫০ রুপি তে উন্নীত হয়েছে, অন্যদিকে সূর্যমুখীফুলের দাম কুইন্টাল প্রতি ১১২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫,৩২৭ টাকা করা হয়েছে। তোমর বলেন যে সরকার এমএসপি পদ্ধতি বজায় রেখেছে এবং এটি অব্যাহত থাকবে আর রবি মৌসুমের আগে নতুন সমর্থন মূল্য অনুমোদন করা হবে, যেমনটা বিরোধী দলগুলো মিথ্যা প্রচারণা ছড়িয়ে দিয়েছে তার বিরুদ্ধে এটা যোগ্য জবাব হবে।

    কংগ্রেসের কিছু সংসদ সদস্য এমএসপি গুলির সম্পর্কে ঘোষণা করার পর সংসদ থেকে ওয়াক আউট করেন। বিভিন্ন তথ্য উদ্ধৃত করে তোমর বলেন, ইউপিএ সরকারের তুলনায় গত ছয় বছরে এই সরকারের অধীনে ক্রয় উল্লেখযোগ্যভাবে বেশি হয়েছে।

    তোমর বলেন, গত ছয় বছরে এমএসপি হিসেবে কৃষকদের ৭ লক্ষ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে, যা ইউপিএ সরকারের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ। মন্ত্রী বলেন, এমএসপি এবং এপিএমসি পদ্ধতির পাশাপাশি এমএসপি হারে ফসল ক্রয় অব্যাহত থাকবে। তিনি আরো বলেন যে কৃষকরা এপিএমসি’র বাইরেও বিক্রি করতে পারবেন।

    পরে বেশ কয়েকটি টুইটে তোমর বলেন, গমের এমএসপি উৎপাদন খরচের চেয়ে ১০৬ শতাংশ বেশি। গ্রাম এবং ডালের ক্ষেত্রে, এমএসপি উৎপাদন খরচের চেয়ে ৭৮ শতাংশ বেশি। যবের সমর্থন মূল্য উৎপাদন খরচের চেয়ে ৬৫ শতাংশ বেশি।

    সরিষা এমএসপি উৎপাদন খরচের চেয়ে ৯৩ শতাংশ বেশি, অন্যদিকে সাফফ্লাওয়ারের সহায়তা মূল্য উৎপাদন খরচের চেয়ে ৫০ শতাংশ বেশি। এদিকে সোমবার সরকার ২০২০-২১ সালের ফসল বছরে খাদ্যশস্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে, যা গত বছরের উৎপাদনের তুলনায় প্রায় ১.৫ শতাংশ বেড়েছে।

    গম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২০২০-২১ এর জন্য ১০৮ মিলিয়ন টন নির্ধারণ করা হয়েছে যা গত বছর ছিল ১০৭.৫৯ মিলিয়ন টন। মন্ত্রী’র এই ঘোষণার পর সংসদে উপস্থিত কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন, কংগ্রেস তাদের শাসনকালে কৃষিমাণ্ডির কাঠামো স্থাপন করেছে কিন্তু এই বিজেপি সরকার তা ভেঙ্গে ফেলছে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    অনেকদিন পর রাজ্যে কমল করোনা সংক্রমন , উদ্বেগের কারণ কলকাতা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : গত কয়েকদিন পর সামান্য কমল করোনা সংক্রমণ। কমল মৃত্যুর সংখ্যাও। গত তিনদিন ধরে বাংলায়...

    প্রয়াত নাট্যজগতের অন্যতম বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব শাঁওলি মিত্র !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রয়াত বাংলার অন্যতম বিখ্যাত নাট্যকার শাঁওলি মিত্র। আজ দুপুর তিনটের সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ...

    দীর্ঘদিন স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার প্রয়োজন নেই , বললেন বিশ্ব ব্যাংকের কর্তা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা থেকে শিশুদের রক্ষা করতে দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ স্কুল, কলেজ...

    ওমিক্রনের উপসর্গের সাথে অন্য ভ্যারিয়েন্টের পার্থক্য কি ? দেখুন কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ওমিক্রনের ফলে দ্রুত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। ওমিক্রনে সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বটে। কিন্তু...

    আর ৭ দিন নয় , এবার ৫ দিন হতে পারে হোম আইসোলেশনের মেয়াদ !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আর ৭ দিন নয়, এবার থেকে করোনায় আক্রান্ত হলে ৫ দিন হোম আইসোলেশনে থাকলে...