27 C
Kolkata
Tuesday, October 4, 2022
More

    ‘পিএম কেয়ার্স’ তহবিলে প্রাপ্ত অনুদানের RTI করা যাবে না, এটি আইনের উর্দ্ধে: প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: সম্প্রতি একটি সমীক্ষা থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর নাগরিক সহায়তা এবং ত্রাণ তহবিলে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি নয় এর পাশাপাশি, অন্তত সাতটি পাবলিক সেক্টর ব্যাংক, সাতটি নেতৃস্থানীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং বীমাকারী, এবং আরবিআই, একসাথে তাদের কর্মচারীদের বেতন থেকে ২০৪.৭৫ কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে।

    এমনকি এই রেকর্ড দেখাচ্ছে, লাইফ ইন্স্যুরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (এলআইসি), জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (জিআইসি) এবং ন্যাশনাল হাউজিং ব্যাংক তাদের কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি (সিএসআর) বরাদ্দ এবং অন্যান্য বিধান থেকে পৃথকভাবে ১৪৪.৫ কোটি টাকারও বেশি অনুদান দিয়েছে।

    এছাড়া আরটিআই প্রশ্নে সাড়া দেওয়া ১৫টি সরকারি ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠানের মোট অনুদান ৩৪৯.২৫ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, যারা এই তহবিল পরিচালনা করে, তারা প্রাপ্ত অনুদানের বিস্তারিত বিবরণ দিতে অস্বীকার করেছে। এই বিষয়ে প্রশ্ন করলে এক আধিকারিক জানান, “পিএম কেয়ারস “আরটিআই অ্যাক্ট এর অধীন কোন সরকারী কর্তৃপক্ষ নয়… “।

    আরটিআই প্রশ্নে সাড়া দেওয়া পাবলিক সেক্টর ব্যাংক এবং প্রতিষ্ঠানের তালিকার শীর্ষে এলআইসি (LIC) বিভিন্ন বিভাগের অধীনে পিএম কেয়ারকে ১১৩.৬৩ কোটি টাকা দিয়েছে: কর্মচারীদের বেতন থেকে ৮.৬৪ কোটি টাকা, “কর্পোরেট কমিউনিকেশন” এর অধীনে ১০০ কোটি টাকা এবং “গোল্ডেন ফাউন্ডেশন জুবিলি” এর অধীনে ৫ কোটি টাকা।

    রেকর্ড এও দেখাচ্ছে যে এলআইসির ১০০ কোটি টাকা অবদান ৩১ মার্চ দেওয়া হয়েছে যার পাশাপাশি আরও ৫ কোটি টাকাও মার্চ মাসে দান করা হয়, কিন্তু সেই টাকা প্রদানের কোন তারিখ উল্লেখ করা হয়নি।

    সাতটি পাবলিক ব্যাংকের শীর্ষে থাকা এসবিআই যারা আরটিআই প্রশ্নে সাড়া দিয়েছে, তারা দিয়েছে ১০৭.৯৫ কোটি টাকারও বেশি। যার মধ্যে ১০০ কোটি টাকার প্রথম ট্র্যাঞ্চ ৩১ মার্চ প্রদান করা হয়। এই টাকার উত্স কোথা থেকে ? এর জবাবে দেশের বৃহত্তম ব্যাংকার এসবিআই বলেছে যে এর পুরো অবদান ছিল তাদের কর্মীদের বেতন থেকে। জাতীয় ব্যাংকিং নিয়ন্ত্রক আরবিআই বলেছে যে তাদের দেওয়া ৭.৩৪ কোটি টাকা ছিল “কর্মীদের বেতন” থেকেই।

    এ বছরের ২৮ মার্চ তারিখে কোভিড মহামারী
    দেখা দেওয়ার পর পিএম কেয়ার স্থাপন করা হয় এবং ৩১ মার্চের মধ্যে ৩,০৭৬.৬২ কোটি টাকা সেখানে অন্তর্ভূক্ত করা হয়, যার মধ্যে ৩,০৭৫.৮৫ কোটি টাকা “স্বেচ্ছাসেবী অনুদান” হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়।

    ১৯’শে আগস্ট একটি সংবাদ মাধ্যম রিপোর্ট করে যে ৩৮টি পিএসইউ তাদের সিএসআর তহবিল ব্যবহার করে ২,১০৫ কোটি টাকার বেশি অবদান রেখেছে। পাঁচ দিন আগে, সেই সংবাদপত্রই রিপোর্ট করেছে যে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং নিয়ন্ত্রক শিক্ষক এবং অশিক্ষক কর্মচারীদের বেতন এবং ছাত্র এবং পেনশনভোগীদের বেতন থেকে “স্বেচ্ছাসেবী অনুদান” আকারে ২১.৮১ কোটি টাকা অবদান রেখেছে।

    কর্মীদের বেতন এবং সংশ্লিষ্ট বেনিফিট থেকে তাদের অবদানের বিস্তারিত ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানে করা আরটিআই উত্তর:

    • কানারা ব্যাংক ১৫.৫৩ কোটি টাকা “মোট অবদান” ছাড়া আর কোন বিবরণ প্রদান করেনি।
    • ইউনিয়ন ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (১৪.৮১ কোটি টাকা): কর্মীদের একদিনের ছুটি সুবিধা ।
    • সেন্ট্রাল ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (১১.৮৯ কোটি টাকা): কর্মচারীদের দুই দিনের সুবিধা।
    • ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র (৫ কোটি টাকা): একদিনের বেতন এবং কর্মচারীদের দুই দিনের ছুটি।
    • এসআইডিবিআই, স্মল ইন্ডাস্ট্রিজ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, (৮০ লাখ টাকা): কর্মীদের বেতন থেকে “স্বেচ্ছাসেবী অনুদান”।
    • জিআইসি (১৪.৫১ লাখ টাকা): কর্মচারীদের “একদিনের বেতন”।
    • আইআরডিএআই, বীমা নিয়ন্ত্রক ও উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, (১৬.০৮ লাখ টাকা): কর্মীদের “স্বেচ্ছাসেবী অবদান”।
    • নাবার্ড, ন্যাশনাল ব্যাংক ফর এগ্রিকালচার এন্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট, (৯.০৪ কোটি টাকা): “কর্মচারী ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের” বেতন।
    • ন্যাশনাল হাউজিং ব্যাংক (৩.৮২ লাখ টাকা): “কর্মচারীদের অবদান”।

    এলআইসি যারা কর্মচারীদের বেতন ছাড়াও অন্য উৎস থেকে অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে রয়েছে: সিএসআর থেকে ২২.৮ কোটি টাকা সহ জিআইসি; সিএসআর থেকে ১৪.২ কোটি রুপি সহ সিডবিআই; এবং, ন্যাশনাল হাউজিং ব্যাংক সিএসআর থেকে আড়াই কোটি টাকা।

    এই আরটিআই’এর আবেদন আগস্টমাসে পাঠানো হয় এবং সেপ্টেম্বর মাসে তার সাড়া পাওয়া যায়। EXIM ব্যাংক, যা সম্পূর্ণভাবে সরকারের মালিকানাধীন, আরটিআই অনুরোধের অধীনে কোন বিস্তারিত তথ্য প্রদান করেনি কিন্তু ২০১৯-২০ সালের বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে তারা এই তহবিলে ১ কোটি টাকা অবদান রেখেছে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    হিন্দু মহাসভার পুজোয় মহিষাসুর রূপে গান্ধীজী ! তুঙ্গে জোর বিতর্ক

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কলকাতা-সহ সারা রাজ্য জুড়ে বিরাট ধুমধাম করে পালন করা হচ্ছে দুর্গাপুজো। অন্যদিকে দানা বেধেছে...

    বদলে যাচ্ছে ট্রেনের টাইমটেবিল

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ভারতে দু’কোটি ২৩ লক্ষ মানুষ প্রতি দিন ট্রেনে যাতায়াত করেন। কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য লোকাল,...

    চোখ রাঙাচ্ছে ঘূর্ণাবর্ত , বৃষ্টিতে ভিজবে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চোখ রাঙাচ্ছে ঘূর্ণাবর্ত। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, ওই ঘূর্ণাবর্তের প্রভাবে সপ্তমী থেকেই দক্ষিণবঙ্গে বাড়তে পারে...

    খাড়্গে বনাম থারুর , জমজমাট কংগ্রেস সভাপতি পদের লড়াই

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সরকারিভাবে কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন হয়ে গেল দ্বিমুখী। ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মন্ত্রী কে এন ত্রিপাঠির মনোনয়নপত্র...

    মুস্তাক আলি ট্রফিতে বাংলা দলে বিশ্বকাপজয়ী বোলার দলে নেই অভিজ্ঞ ব্যাটার মনোজ, অনুষ্টুপ

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ১১ অক্টোবর থেকে শুরু সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফির দল ঘোষণা করল বাংলা। ক্রিকেটে...