26 C
Kolkata
Thursday, August 11, 2022
More

    আজ রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ এর ৭৫’তম জন্মদিন, শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: ভারতের ১৪’তম রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ আজ তাঁর জীবনের ৭৫’তম বয়সে পদার্পণ করলেন। আজ রাষ্ট্রপতি ভবনে জন্মদিন উদযাপিত হচ্ছে। উত্তর প্রদেশের কানপুরের একটি বেনামি গ্রামে জন্মগ্রহণ করা কোবিন্দের একজন আইনজীবি থেকে রাষ্ট্রপতি হয়ে ওঠার এই লম্বা সফর তাঁর অলরাউন্ড ব্যক্তিত্বের প্রমাণ। আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একটি বিবৃতিতে একথা বলেছেন। সেই সাথে আজ সকালে টুইটারে তাঁর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতিকে।

    প্রধানমন্ত্রী মোদী জি টুইটে লিখেছেন -“রাষ্ট্রপতিজিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। তার সমৃদ্ধ অন্তর্দৃষ্টি এবং নীতি বিষয়ক জ্ঞানী উপলব্ধি আমাদের জাতির জন্য মহান সম্পদ। তিনি অসহায়দের সেবা করার প্রতি অত্যন্ত সহানুভূতিশীল। আমি তার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘ জীবনের জন্য প্রার্থনা করছি।”

    পাঠকদের মধ্যে অনেকেই জানেন যে মাননীয় রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ জি তাঁর প্রথম জীবনের পেশায় একজন উকিল, এবং তারপর ভারতের রাষ্ট্রপতি হওয়ার আগে রাজ্যসভার সদস্য এবং বিহারের গভর্নর হিসেবেও মনোনীত হন, তবে রাষ্ট্রপতিজি’র বিখ্যাত কর্মজীবন সম্পর্কে অনেক পরিচিত তথ্য যা এখনো অনেকের কাছেই অজানা রয়েছে। আজ জেনে নেব সেগুলোই-

    *রাম নাথ কোবিন্দ তার ছাত্র জীবনে দুর্বল শ্রেণীর, বিশেষ করে তফসিলি জাতি/তফসিলি (দলিত) উপজাতিদের অধিকারের জন্য লড়াই করেছেন।

    *কানপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন ও বাণিজ্যে স্নাতক হওয়ার পর তিনি ইন্ডিয়ান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস (আইএএস) প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য দিল্লি চলে আসেন। যাইহোক, তিনি প্রথম দুই প্রচেষ্টায় সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে ব্যর্থ হন। কিন্তু তিনি তৃতীয় প্রচেষ্টায় সফল হন। অবশেষে তিনি মিত্র সেবার জন্য নির্বাচিত হন, তাই তিনি সিভিল সার্ভিসে যোগ দেননি এবং একজন উকিল হিসেবে কাজ শুরু করেন।

    *কোবিন্দ ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত প্রায় ১৬ বছর দিল্লি হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টে অনুশীলন করেন।

    *রাজ্যসভার সংসদ সদস্য হিসেবে কোবিন্দ উত্তর প্রদেশ এবং এমপিএলএডি (সংসদ স্থানীয় এলাকা উন্নয়ন) প্রকল্পের অধীনে উত্তরাখণ্ড ও উত্তর প্রদেশে স্কুল ভবন নির্মাণে সহায়তা করেন।

    *কোবিন্দ জাতিসংঘে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন। তিনি অক্টোবর ২০০২ সালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দিয়েছিলেন।

    *১৯৭৭ সালে ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) যোগদানের আগে, তিনি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মোরারজি দেশাইয়ের ব্যক্তিগত সচিব হিসেবেও কাজ করেন।

    *কোবিন্দ তার পৈতৃক বাড়ি ও তাঁর জন্মস্থান ‘পারাউনখ’ একটি বিবাহ কক্ষ হিসেবে দান করেছেন।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    কমনওয়েলথে সোনাজয়ী অচিন্ত্যকে রাজ্য সরকারের ৫ লক্ষ!‌ ‘খেলা দিবসে’ আর্থিক পুরস্কার সৌরভকেও

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কমনওয়োলথ গেমসো ভারোত্তোলনে সোনা জয়ী অচিন্ত্য ও স্কোয়াশে ব্রোঞ্জ জয়ী সৌরভ ঘোষাল। দুই...

    সরাসরি ধর্মতলা থেকে হাবড়া এক বাসেই , দেখুন সম্পূর্ণ তথ্য

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : এবার সরাসরি ধর্মতলা থেকে হাবড়া এক বাসে যাওয়া যাবে।ওই বাসে পৌঁছে যাওয়া যাবে বকখালিও।...

    সঞ্জীবনী সঞ্চার বঙ্গ বিজেপিতে , এলেন নতুন পর্যবেক্ষক

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : বিজয়বর্গীয় যুগের অবসান। নয়া পর্যবেক্ষক পেল বঙ্গ বিজেপি। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুনীল বনশলকে...

    নির্ধারিত সূচির আগে শুরু হবে ফুটবল বিশ্বকাপ , জানাল FIFA

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : নির্ধারিত সূচির একদিন আগে শুরু হবে ফুটবল বিশ্বকাপ। কাতারে প্রচণ্ড গরমের কারণে শীতকালে ফুটবল...

    একেই বলে ঈশ্বরের কৃপা ! ৭০ বছর বয়সে মা হলেন চন্দ্রাবতী দেবী

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : একে বলে ঈশ্বরের আশির্বাদ ! দশকের পর দশক ধরে চেষ্টাতেও সম্ভব হচ্ছিল না, এবারে...