26 C
Kolkata
Thursday, May 26, 2022
More

    বং বিজেপির ওপর বিপুল চাপ এখনও সন্তুষ্ট নন ‘সুপার বস’ মোদী-দেবারুণ রায়

    ফলে বাংলার কথা ভেবে উত্তরপ্রদেশের সরকার সিদ্ধান্ত নেবেনা। আগে ইউ পি পরে বাংলা, যে যার রাজ্য সামলা। এটাই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা কার্যত বলে দিয়েছেন বাংলার বাবুদের। দিলীপবাবু দিল্লির মৌসম বুঝে চলেন। তাছাড়া তিনি সংঘের সন্তান। কিন্তু তৃণমূল থেকে আসা বাবুদের বার বার টিউন করতে হয়। সুতরাং দিল্লির নির্দেশ কায়েম করেন যাঁরা, যেমন শিবপ্রকাশ , মেনন অথবা কৈলাস, তাঁরা জানিয়ে দিয়েছেন, রাজ্যের সরকারকে ঘায়েল করতে রাস্তায় নামতে হবে। দিল্লি-লখনউয়ের দিকে তাকিয়ে রাজনীতি করলে চলবে না । একেক রাজ্যে একেক ইস্যু। বিহারের ভোট সামনে। ওখানে রাজপুত তাস খেলে উচ্চবর্ণের ভোট সংহত করতে হবে। কারণ নিম্নবর্ণের ভোটের ভাগীদার বেশি। উল্টোদিকে বিজেপি একাই। এই অঙ্কে শুধু বিরোধী লালু – কংগ্রেস জোট নয় , শাসক মোর্চার নেতা নীতীশকেও নাকচ করা যায়। বিজেপি অনেকটা বেশি আসন পেলে মুখ্যমন্ত্রী করা যাবে কোনও উচ্চবর্ণের নেতাকে। সঙ্গে নুনের কাজ করবেন নীতীশ, রামবিলাস আর অতি দলিত নেতার জিতন রাম মাঝি কিছু ভোট। এই লক্ষ্যে পৌঁছতে হলে উচ্চবর্ণের তাস ছাড়া চলবেনা।

    তাই পাশের রাজ্য ও বৃহত্তম প্রদেশের ঠাকুরনেতা যোগীর উত্থান বিজেপির আসল অঙ্ক মিলিয়ে দেবে বলে গেরুয়া ব্রিগেডের ব্রিগেডিয়ার জেনারেলরা নির্দেশ দিয়েছেন। তাই ১৯ বছরের দলিত মেয়ের ধর্ষক আর জিভ কাটাদের গর্দান নেওয়ার গল্প দিয়ে জাতপাতের মেরুকরণ দাঁড়াবে মোক্ষম। ওতেই যোগীরাজের মোক্ষলাভ। এদিকে মণীষার দেহটা ছিন্নভিন্ন করেছে যারা বলে আম জনতার অভিযোগ, তারা অভিযুক্তদের ছেড়ে দিয়ে মৃতা মেয়ের পরিবারের সবার নামে এফআইআর করার দাবিতে পথে নেমেছে তথাকথিত ঠাকুরের দল। বিজেপির পূর্বতন বিধায়ক রাজবীর সিং পহেলওয়ানের নেতৃত্বে তাদের বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে হাথরসে। ব্যাপারটা এতটাই দৃষ্টিকটূ যে তারা সিবিআই তদন্তের সিদ্ধান্ত ও যোগীকে ধন্য ধন্য করেছে। মুখ্যমন্ত্রীকে এই হেনস্তা থেকে বাঁচাতে এসপি রাজবীর সহ ১০০ জন অজানা লোকের বিরুদ্ধে এফআইআর করার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু গ্রেফতার করা হয়নি।

    অন্যদিকে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশ উত্তরপ্রদেশ থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে মণীশ শুক্লা খুনের পড়ে পাওয়া চোদ্দ আনা নিয়ে সরব হতে। এবং যেভাবে বৃহস্পতিবারের প্রতিরোধ ও প্রচার জুটেছে প্রশাসন আর মিডিয়া মারফত, তাতে কেন্দ্রীয় নেতারা আশার কথা শুনিয়েছেন দিল্লির বসদের। কিন্তু ভবি ভুলবার নন সুপার বস। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ইদানিং বেশি চাপ নিতে না দিলেও তাপ উত্তাপ কোথায় কতটা বহাল তার হাল জানাচ্ছেন শাহই। আর কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা যতক্ষণ না পার্টির প্রবচনে সায় দিচ্ছেন ততক্ষণ সুপার বস সন্তুষ্ট নন। রাজ্যের নেতাদের তীব্র চাপে থাকতে হবে। এর নানা পদ্ধতি আছে। সবে ঠাকুর ঠাকুর করে একটা ইস্যু এসেছে। নিহত ব্রাহ্মণ মণীশ আর নেতা ঠাকুর অর্জুন সিং। মামলায় কী যায় আসে? অর্জুনের গর্জন শোনা যাচ্ছে মিডিয়ায়। গোলাপকে যে নামেই ডাকো। সেতো আদপে গোলাপ। বাংলায় জাতপাত খায়না। কিন্তু পেশিশক্তি তো খায়। সুতরাং ব্যারাকপুরে বল ঘুরছে। কার কোর্টে ? মালুম হবে অন্য মেরুকরণের ভোটে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    ফের বেসরকারিকরণের পথে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ! তালিকায় আর কোন কোন সংস্থা ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ফের বেসরকারিকরণের পথে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা। এবার হিন্দুস্তান জিঙ্ক। দেশের বৃহত্তম ইন্টিগ্রেটেড জিঙ্ক প্রস্তুতকারী...

    ‘মাঙ্কিপক্স’ মোকাবিলায় কতটা প্রস্তুত ভারত ? কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা মহামারির বিপদ কাটতে না কাটতেই শিয়রে অন্য বিপদ, ‘মাঙ্কিপক্স’ সংক্রমণ। WHO-র সাম্প্রতিকতম তথ্য...

    ত্রাতা সেই মুখ্যমন্ত্রী , নতুন ইনভেস্টর পেল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ত্রাতা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ইনভেস্টর সমস্যা মিটে গেল ইস্টবেঙ্গলে। লাল-হলুদে ইনভেস্টর হিসাবে...

    করোনা মোকাবিলায় মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ বাইডেন , দুষলেন চীনকে

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কয়েকদিন আগে WHO জানিয়েছিল, কোভিডে মৃতের সংখ্যা চেপে গিয়েছে ভারত। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো...

    আগামীকাল ভারত বনধের ডাক ! একাধিক দাবি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় কর্মচারী ফেডারেশনের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আবারও ২৫ মে ভারত বনধের ডাক। ভোটে ইভিএম-র ব্যবহার বন্ধ সহ একাধিক বিষয়ে ভারত...