16 C
Kolkata
Monday, January 17, 2022
More

    হাথরাস মামলাতে এই প্রথম উত্তর প্রদেশ পুলিশের উদ্দেশ্যে নির্দেশিকা পাঠালো কেন্দ্রীয় গৃহ মন্ত্রণালয়

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: রাজ্যের নতুন উপদেষ্টা হিসেবে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শনিবার পুলিশকে কঠোরভাবে নির্দেশিকা মেনে চলতে এবং নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধ সংক্রান্ত মামলা মোকাবেলা করার সময় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছে।

    হাথরাস মামলাকে ভুল ভাবে পরিচালনার জন্য উত্তরপ্রদেশ পুলিশের সমালোচনার মধ্যেই এই নির্দেশিকা রাজ্যের হাতে এসেছে। মৃতের আত্মীয়কে ভয় দেখানো, নির্যাতিতার মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দিতে অস্বীকার করা এবং অপরাধের ১১ দিন পর ফরেনসিক নমুনা সংগ্রহের অভিযোগে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

    নির্দেশিকার বয়ানে লিখিত “অনুরোধ করা হয়েছে যে রাষ্ট্র/ইউটিএস যথাযথভাবে সংশ্লিষ্ট সকলকে আইনের বিধানগুলো কঠোরভাবে মেনে চলার জন্য নির্দেশনা জারি করতে পারে। এমএইচএ বলেছে, আইনে প্রয়োজন অনুযায়ী দোষীদের চার্জশিটের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ নিশ্চিত করতে ইনভেস্টিগেশন ট্র্যাকিং সিস্টেম ফর সেক্সুয়াল অফেন্সেস (আইটিএসও)-এর মামলাগুলো পর্যবেক্ষণ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

    এতে বলা হয়েছে, সরকার বছরের পর বছর ধরে এই ধরনের মামলা মোকাবেলার জন্য সংসদীয় বিধান জোরদার করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। “আইনের কঠোর বিধান এবং বেশ কিছু ক্ষমতা নির্মাণের ব্যবস্থা নেওয়া সত্ত্বেও, এই বাধ্যতামূলক প্রয়োজনীয়তা মেনে চলতে পুলিশের যে কোন ব্যর্থতা দেশে ফৌজদারি ন্যায়বিচার প্রদানের জন্য ভালো নাও হতে পারে, বিশেষ করে নারী নিরাপত্তার প্রেক্ষাপটে। এই ধরনের ত্রুটি, যদি লক্ষ্য করা যায়, তাহলে এর জন্য দায়ী সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

    যৌন অপরাধের মামলার তদন্তের জন্য প্রণীত নির্দেশিকা এবং আইন ব্যাখ্যা করতে গিয়ে এমএইচএ (MHA) রাজ্যগুলিকে এফআইআর-এর বাধ্যতামূলক নিবন্ধন নিশ্চিত করতে এবং নারীদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অন্যান্য অপরাধের ক্ষেত্রে এফআইআর দায়ের করতে অস্বীকার কারী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলেছে। এছাড়াও পুলিশকে নির্যাতিতার মৃত্যুর ঘোষণাকে একটি বিষয় হিসেবে বিবেচনা করতে বলা হয়েছে; ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য প্রমাণ সংগ্রহ নিশ্চিত করা; যৌন নিপীড়ন প্রমাণ সংগ্রহ (SAEC) কিট ব্যবহার; দুই মাসের মধ্যে এই ধরনের মামলার তদন্ত সম্পন্ন করা; এবং পুনরায় অপরাধীদের চিহ্নিত এবং ট্র্যাক করতে যৌন অপরাধীদের উপর জাতীয় ডাটাবেস ব্যবহার করা।

    মন্ত্রণালয় সম্প্রতি ফরেনসিক প্রমাণের মাধ্যমে যৌন অপরাধের উন্নততর তদন্তের জন্য রাজ্যগুলিতে SAEC কিট বিতরণ করেছে।

    “এমএইচএ-এর অধীনে ডিরেক্টরেট অফ ফরেনসিক সায়েন্স সার্ভিসেস (ডিএফএসএস) তদন্ত কর্মকর্তা ও মেডিকেল অফিসারদের যৌন নিপীড়নের মামলায় ফরেনসিক প্রমাণ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও পরিবহনের জন্য নির্দেশিকা জারি করেছে। রাজ্য পুলিশের সুবিধার্থে ব্যুরো অফ পুলিশ রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিপিআর অ্যান্ড ডি) প্রতিটি রাজ্য/ইউটিকে যৌন নিপীড়নের প্রমাণ সংগ্রহ (এসএইসি) কিট সরবরাহ করেছে।”

    “যৌন নিপীড়নের প্রতিটি ক্ষেত্রে এই এসএইইসি কিট ব্যবহার করা প্রয়োজন। এই বিষয়ে ৫ অক্টোবর ২০২০ তারিখে এমএইচএ উপদেষ্টা উল্লেখ করা যেতে পারে। বিপিআর অ্যান্ড ডি এবং এলএনজেএন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড ফরেনসিক সায়েন্সেস (এনআইসিএফএস) নিয়মিত ভাবে পুলিশ/প্রসিকিউটর এবং মেডিকেল অফিসারদের জন্য ফরেনসিক প্রমাণ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও পরিচালনার প্রক্রিয়া (ToT) প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া ও প্রশিক্ষণ পরিচালনা করে আসছে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    প্রয়াত নাট্যজগতের অন্যতম বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব শাঁওলি মিত্র !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রয়াত বাংলার অন্যতম বিখ্যাত নাট্যকার শাঁওলি মিত্র। আজ দুপুর তিনটের সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ...

    দীর্ঘদিন স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার প্রয়োজন নেই , বললেন বিশ্ব ব্যাংকের কর্তা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা থেকে শিশুদের রক্ষা করতে দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ স্কুল, কলেজ...

    ওমিক্রনের উপসর্গের সাথে অন্য ভ্যারিয়েন্টের পার্থক্য কি ? দেখুন কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ওমিক্রনের ফলে দ্রুত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। ওমিক্রনে সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বটে। কিন্তু...

    আর ৭ দিন নয় , এবার ৫ দিন হতে পারে হোম আইসোলেশনের মেয়াদ !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আর ৭ দিন নয়, এবার থেকে করোনায় আক্রান্ত হলে ৫ দিন হোম আইসোলেশনে থাকলে...

    আবারও করোনার নতুন ভ্যারিয়্যান্ট তৈরি হতে পারে , সতর্ক করলেন বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ওমিক্রনেই ধীরে ধীরে শেষের পথে এগোবে করোনা, এমনই আশ্বাস পাওয়া যাচ্ছিল বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের কথায়।এবার...