28 C
Kolkata
Thursday, August 11, 2022
More

    এবার দূরপাল্লার ট্রেনে স্লীপার কোচ বাতিল! আবার রদবদল ভারতীয় রেলে

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: করোনা আবহে লকডাউন চলাকালীন ভারতীয় রেলে অনেক ধরণের পরিবর্তণ আনা হয়েছে। সেজে উঠেছে স্টেশন। বদলে গিয়েছে টিকিট বুকিং সহ যাতায়াতের হাজারো নিয়ম। এবার হাইস্পিড ট্রেন পরিষেবা দেওয়ার পথে বেশ কিছু রদবদল আনতে চলেছে ভারতীয় রেল। সে কারণেই হাইস্পীড ট্রেন থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে স্লিপার কোচ। পরিবর্তে আনা হচ্ছে বিশেষ বাতানুকূল কামরা।

    রেল মন্ত্রকের এক আধিকারিক সূত্রে জানা যাচ্ছে, প্রযুক্তিগত কারণেই ঘণ্টায় ১৩০ কিমির বেশি গতিতে চলা ট্রেনে বাতানুকূল কামরা রাখা জরুরি। ইতিমধ্যে ভারতীয় রেল হাই স্পিড ট্রেন চালানোর উপযোগী পরিকাঠামো গড়ে তোলার জন্য কাজ শুরু করেছে। এই উদ্দেশ্য মাথায় রেখে স্বর্ণ চতুর্ভূজ ও কৌণিক প্রকল্পে রেল লাইনের মানোন্নয়ন করে ঘণ্টায় ১৩০ থেকে ১৬০ কিমি গতিতে চলা ট্রেনের জন্য উপযোগী করা হচ্ছে। শুধুমাত্র এই সমস্ত ট্রেনেই নন-এসি কোচের পরিবর্তে বিশেষ বাতানুকূল কামরা ব্যবহার করা হবে। বাতাস ও আবহাওয়াজনিত কারণেই তাকরা জরুরি।

    ওই আধিকারিক আরও জানিয়েছেন যে, ইতিমধ্যে ঘণ্টায় ১৩০ কিমির বেশি গতিতে ট্রেন চালানোর মতো উপযোগী করে তোলা হয়েছে বেশ কিছু করিডর। তবে এর অর্থ এই নয় যে টিকিটের দাম আকাশ ছোঁয়া হবে। এই বিষয়ে রেল কর্তারা জানিয়েছেন, নতুন বাতানুকূল কামরায় আসনভাড়া সাধারণের পকেটদুরস্তই হবে। আশা করা যাচ্ছে যে ভাড়া হবে হামসফর ট্রেনের পরিকাঠামো অনুসরণ করে।

    ইতিমধ্যে কাপুরথালায় রেল কোচ ফ্যাক্টরিতে বিশেষ এই কামরার মডেল তৈরি করা হচ্ছে, যা আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সম্পূর্ণ হবে। তবে এই কামরা গুলোতে ৭২ বার্থের স্লিপার কোচের তুলনায় থাকছে ৮৩টি বার্থ। তবে ক্যুপের ভিতরে বার্থের সংখ্যা স্লিপার কোচের মতোই থাকছে। এমনকি বিশেষ কামরায় থাকছে না সাইড আপার ও সাইড লোয়ার বার্থের মধ্যে মিডল বার্থ। কামরা থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে বৈদ্যুতিক সংযোগের সরঞ্জাম এবং যাত্রীদের কম্বল, চাদর ও বালিশ রাখার জন্য নির্দিষ্ট কাবার্ড। করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে যাত্রীদের বিছানার সামগ্রী সরবরাহ বন্ধ রেখেছে রেল।

    রেলের উদ্দেশ্যে আগামী বছরের মধ্যে এমন কমপক্ষে ২০০টি কামরা তৈরি করে ফেলা। তাছাড়া কামরাগুলি ব্যবহারের আগে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা ও মূল্যায়ণ করা হবে বলেও জানিয়েছে রেল মন্ত্রক। রেল মন্ত্রক সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, ঘণ্টায় ১৩০ কিমি বেগে চলা ট্রেনে স্লিপার কোচ না রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও ঘণ্টায় ১১০ কিমি গতিতে চলা সাধারণ মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেনে এই কামরা থাকছে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    কমনওয়েলথে সোনাজয়ী অচিন্ত্যকে রাজ্য সরকারের ৫ লক্ষ!‌ ‘খেলা দিবসে’ আর্থিক পুরস্কার সৌরভকেও

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কমনওয়োলথ গেমসো ভারোত্তোলনে সোনা জয়ী অচিন্ত্য ও স্কোয়াশে ব্রোঞ্জ জয়ী সৌরভ ঘোষাল। দুই...

    সরাসরি ধর্মতলা থেকে হাবড়া এক বাসেই , দেখুন সম্পূর্ণ তথ্য

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : এবার সরাসরি ধর্মতলা থেকে হাবড়া এক বাসে যাওয়া যাবে।ওই বাসে পৌঁছে যাওয়া যাবে বকখালিও।...

    সঞ্জীবনী সঞ্চার বঙ্গ বিজেপিতে , এলেন নতুন পর্যবেক্ষক

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : বিজয়বর্গীয় যুগের অবসান। নয়া পর্যবেক্ষক পেল বঙ্গ বিজেপি। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুনীল বনশলকে...

    নির্ধারিত সূচির আগে শুরু হবে ফুটবল বিশ্বকাপ , জানাল FIFA

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : নির্ধারিত সূচির একদিন আগে শুরু হবে ফুটবল বিশ্বকাপ। কাতারে প্রচণ্ড গরমের কারণে শীতকালে ফুটবল...

    একেই বলে ঈশ্বরের কৃপা ! ৭০ বছর বয়সে মা হলেন চন্দ্রাবতী দেবী

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : একে বলে ঈশ্বরের আশির্বাদ ! দশকের পর দশক ধরে চেষ্টাতেও সম্ভব হচ্ছিল না, এবারে...