32 C
Kolkata
Friday, September 30, 2022
More

    পশ্চিমী দেশের অর্থে ‘লালিত’ ইমরান খান এবার তাদের বিরুদ্ধেই ইসলামিক দেশ গুলোকে একজোট হওয়ার আবেদন করেছে

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: আমেরিকার অর্থ সাহায্যে দেশ চালানো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ইউরোপে ‘ক্রমবর্ধমান ইসলাম বিদ্বেষ’এর বিরুদ্ধে মুসলিম রাষ্ট্রগুলিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বুধবার, বিশ্বের সব মুসলিম রাষ্ট্রের নেতাদের উদ্দেশে একটি খোলা চিঠি প্রকাশ করেছেন তিনি। সেই চিঠিতে তিনি লিখেছেন অমুসলিম রাষ্ট্রগুলিতে ক্রমবর্ধমান ইসলামভীতি’র বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য সম্মিলিতভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

    খোলা চিঠিতে তিনি বলেছেন, গোটা বিশ্বেই মুসলিমদের মধ্যে উদ্বেগ এবং অস্থিরতা ক্রমে বাড়ছে। কারণ, তারা দেখছে পশ্চিমী বিশ্বে, বিশেষত ইউরোপে ‘প্রিয় নবি’কে উপহাস ও বিদ্রূপের মাধ্যমে ছোট করা হচ্ছে। আর এইভাবে ইসলাম বিদ্বেষ এবং ইসলামের উপর আক্রমণের জোয়ার ক্রমেও বাড়ছে। তিনি আরও বলেন, ঘৃণা ও চরমপন্থার এই চক্রকে ভাঙতে সম্মিলিতভাবে মুসলিম বিশ্বকে এগিয়ে আসতে হবে। নাহলে এই ঘৃণা ও চরমপন্থা হিংসা এবং মৃত্যুকে ডেকে আনবে।

    পাক প্রধানমন্ত্রী পবিত্র গ্রন্থ কুরান এবং নবিজির প্রতি সমস্ত মুসলমানদের যে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালবাসা রয়েছে তা অমুসলিম রাষ্ট্রগুলির নেতৃত্বকে, বিশেষত পশ্চিমী রাষ্ট্রগুলিকে ব্যাখ্যা করার প্রযোজনীয়তার উপর জোর দিয়েছেন। এই বিষয়ে মুসলিম নেতাদের একযোগে সরব হওয়ার আহ্বান করেছেন তিনি। তাঁর মতে পশ্চিমী বিশ্বকে বোঝাতে হবে, বিশ্বের বিভিন্ন সামাজিক, ধর্মীয় এবং জাতিগোষ্ঠীর মূল্যবোধ আলাদা। মুসলমানদেরও সমান শ্রদ্ধা জানাতে শিখতে হবে পশ্চিমী বিশ্বকে। তারাও কিন্তু বসনিয়া থেকে ইরাক বা আফগানিস্তানে পর্যন্ত প্রচুর মানুষের মৃত্যু দেখেছে। খোলা চিঠিতে ইমরান আরও দাবি করেছেন, শুধু হজরত মহম্মদ নন, যে কোন নবি, তিনি খ্রিস্টান বা ইহুদী-ও হতে পারেন – তাঁর নিন্দা করা ইসলামে অগ্রহণযোগ্য।

    যদিও এই চিঠিতে তিনি একটিবারের জন্যেও সেই শিক্ষককে নৃশংসভাবে হত্যা করার মত ঘৃণ্য কাজের তিরস্কার করেন নি। যদিও ইসলাম শব্দের অর্থ ‘শান্তি’। কিন্তু ইউরোপ সহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে যাওয়া নারকীয় হত্যার ঘটনায় ‘ইসলাম’ ই শেষ পর্যন্ত কাঠগড়ায় উঠেছে। শুধু তাই নয় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ধর্মীয় সহিষ্ণুতার কথা বললেও, মজার বিষয় হল পাকিস্তানেই পরধর্ম নিন্দার পাঠ শেখানো হয়।

    সম্প্রতি জেনেভায়, ইউএন ওয়ার্কিং গ্রুপ অন ডারবান ডিক্লারেশন অ্যান্ড প্ল্যান অব অ্যাকশন-এর মঞ্চে, বালুচ ভয়েস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুনির মেনগাল, পাকিস্তানে কীভাবে ছোট থেকেই পরধর্মের প্রতি ঘৃণা তৈরি করা হয়, তা ফাঁস করে দিয়েছেন। এই বালুচ অধিকার কর্মী জানিয়েছেন, ক্যাডেট কলেজ নামে পরিচিত একটি উচ্চমানের পাক সরকার পরিচালিত আর্মি স্কুলে তিনি পড়তেন। সেখানে, শুরু থেকেই হিন্দুদের ‘কাফের’ বলে শেখানো হত। ইহুদিদের বলা হত ইসলামের শত্রু। এই কারণে তাদের মারতেও বাধা নেই।

    এছাড়াও এইদিনের খোলা চিঠিতে কোথাও ইমরান খান চীনের ‘উইঘুর সম্প্রদায়ের’ কথা উল্লেখ করেননি। যেন চীনের শিনজিয়াং প্রদেশের এই মুসলিম জনজাতির ওপর ঘটে চলা দইনন্দিন অত্যাচার নিয়ে তাঁর কোনও ভাবনাই নেই। এমন কী কাশ্মীরে মুসলিম নির্যাতনের মিথ্যা বয়ান ছোট করে হলেও একবার দিয়েছেন চিঠিতে। সেই সাথে তাঁর নিজের দেশে বালুচিস্তান, গিলগিট-বালুচিস্তান বা দেশের অন্যান্য অঞ্চলে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের কথাও স্থান পায়নি সেই খোলা চিঠিতে।

    ইমারানের এই চিঠি পড়ে অনেক ইসলামধর্মী বিশেষজ্ঞরাই বলছেন ইমরান কুমিরের মত কাঁদছে। শেয়াল ডাকার মত আগ বাড়িয়ে চিত্কার করছে কারণ ক্রমেই পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদীদের দেশ বলে পরিচিত হচ্ছে, সেই সাথে তাঁরা এও বলছেন যে পাকিস্তানের অভ্যন্তরেই প্রতিদিন জিহাদের নামে শয়ে শয়ে মুসলিম হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হচ্ছে। আসলে দেশের অভ্যন্তরে তৈরি হওয়া গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্যে অন্য ইসলামিক দেশগুলির সমর্থন আদায় করার চেষ্টা করছেন পশ্চিমী ও চীনের টাকায় ‘পালতু’ ইমরান খান।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    আমায় ঘুগনি করে দাও না মা গো বেচবো পুজোর প্যান্ডেলে

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কয়েকদিন আগেই খড়্গপুরে একটি প্রশাসনিক বৈঠকে উপস্থিত হয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বেকার যুবক যুবতীদের কাজ...

    মঙ্গলে আলু চাষের সম্ভাবনা নিয়ে আশ্বস্ত করল পরীক্ষা

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রতিদিন বিভিন্ন নিত্য নতুন আবিষ্কার করছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। আর মহাকাশ বিজ্ঞানীদের চোখ যেদিকে রয়েছে তা হলো মঙ্গল...

    সম্পত্তি-বৃদ্ধি মামলায় সুপ্রিম কোর্টে ১৯ তৃণমূল নেতার স্বস্তি।

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : অভিযোগ ছিল ২০১১ থেকে তৃণমূলের ১৯ জন নেতা মন্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ বহুল হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সংক্রান্ত...

    পুজোর আবহে লাল হলুদ জার্সি উদ্বোধন

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চতুর্থীর সুবর্ন সন্ধায় বসেছে চাঁদের হাট। তারকা খচিত সন্ধায় লাল হলুদের জার্সি উদ্বোধন...

    চলে গেলেন সব থেকে বেশী ডার্বি ম্যাচ খেলানো ফিফা রেফারী সুমন্ত ঘোষ

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চলে গেলেন সবথেকে বেশিবার রেফারি হিসেবে ডার্বি ম্যাচ পরিচালনারও নজির সৃষ্টিকারী রেফারি সুমন্ত...