28 C
Kolkata
Sunday, June 26, 2022
More

    পুলওয়ামা হামলার দায় স্বীকার করলো পাকিস্তানের ইমরান সরকার, মন্ত্রীর মন্তব্যে বিপাকে পাকিস্তান

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: এবার সংসদে দাঁড়িয়ে সবার সামনে জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় পাকিস্তানের প্রত্যক্ষ ভূমিকা স্বীকার করে নিলেন সেই দেশেরই মন্ত্রী। উল্লেখ্য সেই জঙ্গি হামলাতে ৪০ জনের উপর জওয়ান শহিদ হন। পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ ই মহম্মদ এই হামলার দায় নিলেও পাকিস্তানের তরফে বারবার দাবি করা হয়, এই হামলার সঙ্গে তাদের কোনও সম্পর্ক নেই। কিন্তু আজ পাক মন্ত্রীর বয়ানে বিতর্ক শুরু হয়েছে পাকিস্তানের অন্দরে।

    শুধু হামলার দায় নয় বরং এই হামলাকে ইমরান খান সরকারের সাফল্য হিসেবেই উল্লেখ করেছেন পাকিস্তানের মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার সংসদে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ভারতে ঢুকে মেরেছি। পুলওয়ামায় আমাদের সাফল্য, ইমরান খানের নেতৃত্বে দেশবাসীর সাফল্য। আমরা সবাই এই সাফল্যের অংশীদার।’ পাকিস্তানের সংসদে হওয়া একটি বিতর্ককে কেন্দ্র করে ফাওয়াদ চৌধুরী এই দাবি করেছেন।

    উল্লেখ্য, আজ পাকিস্তানের পার্লামেন্টে উদ্ভূত একটি বিতর্কে পাকিস্তানের বিরোধী নেতা আয়াজ সাদিক দাবি করেন, কী পরিস্থিতিতে ভারতের উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ছাড়া হয়েছিল তা তিনি নিজের চোখে দেখেছেন। তিনি বলেন, ভারত আক্রমণ করতে পারে শুনে সবচেয়ে ভয় পেয়েছিলেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া। তাঁর পা কাঁপছিল। তিনিই পাকিস্তানের প্রশাসনের কর্তাদের কাছে আবেদন জানান, অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়া হোক।

    প্রসঙ্গত, ২০১৯ এর ১৪’ই ফেব্রুয়ারী পুলওয়ামায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানকে হত্যা করে জঙ্গি সংগঠন জইশ ই মহম্মদ। পরদিন পাকিস্তানের বালাকোটে ঢুকে জইশের ঘাঁটিতে বোমা ফেলে আসে ভারতের বায়ুসেনা। এর পরের দিন পাকিস্তানের একটি যুদ্ধবিমান ভারতে ঢুকে পড়লে তাকে তাড়া করেন উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন। কিন্তু অভিনন্দন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে পড়লে পাকিস্তান তাঁর বিমানটিকে গুলি করে নামায়। অভিনন্দন পাকিস্তানি সেনার হাতে বন্দি হন। কিন্তু ভারত অভিনন্দনের প্রত্যর্পণ এর জন্যে কূটনৈতিকভাবে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে।

    পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ) দলের নেতা আয়াজ সাদিক

    অবশেষে ২০১৯ সালের ১ মার্চ পাকিস্তান তাঁকে ছেড়ে দেয়। তিনি ওয়াগা-আত্তারি সীমান্ত দিয়ে বাড়ি ফেরেন। পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ) দলের নেতা আয়াজ সাদিক বলেন, অভিনন্দন বন্দি হওয়ার পরে সেদেশের বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি আধা সেনার কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। কারণ তাঁদের কাছে খবর ছিল, ভারত যে কোনও সময় আক্রমণ করতে পারে। সেই বৈঠকে সেনাপ্রধানও উপস্থিত ছিলেন। ভারত আক্রমণ করতে পারে শুনে তাঁর পা কাঁপছিল।

    আয়াজের কথায়, ‘সেই মিটিং-এর কথা আমার মনে আছে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শাহ মাহমুদ কুরেশি। যদিও প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ওই বৈঠকে আসতে অস্বীকার করেন। কিছুক্ষণ পরে সেই ঘরে এলেন জেনারেল বাজওয়া। তাঁর কপালে ছিল বিন্দু বিন্দু ঘাম। আমি পরিষ্কার দেখলাম, তাঁর পা কাঁপছে।’ এই মন্তব্যের পরেই ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে হামলা পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাফল্য।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    আগামী সোমবার খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সব স্কুল

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আগামী ২৭ জুন থেকে খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুল। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু...

    পুজোর বাকি ১০০ দিন ! অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় বাঙালি

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : পুজোর বাকি ১০০ দিন। এখন থেকেই পুজোর প্ল্যানিং ? এখনও ঢের বাকি ! না,...

    দুর্বল মৌসুমী বায়ু ! অনিশ্চিত বর্ষা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : মৌসুমি বায়ু ঢুকলেও দক্ষিণবঙ্গে দুর্বল হয়ে পড়ল। আগামী কয়েকদিন বিশেষ বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখছেন না...

    আরেকটা করোনা বিস্ফোরণের মুখে দাঁড়িয়ে রাজ্য ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : রাজ্যে ভয়াবহ আকার নিল করোনা। এক লাফে ৭০০ পার করল দৈনিক সংক্রমণ। বৃহস্পতিবার দৈনিক...

    এক অভিনব সাইকেল যাত্রা শুরু করলো সিভিক ভলেন্টিয়ার বিপ্লব দাস ।

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো :এক অভিনব সাইকেল যাত্রা শুরু করলো বিরাটির সিভিক ভলেন্টিয়ার বিপ্লব...