32 C
Kolkata
Friday, September 30, 2022
More

    সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে এখন ইনটেনসিভ ভেন্টিলেশনে, আশঙ্কার ঘন মেঘ শিল্পী মহলে

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতাল সূত্রে পাওয়ায় খবর অনুযায়ী অভিনেতার স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছিল গতকাল, তাই দেওয়া হয়েছিল বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশন। কিন্তু কোনো উন্নতি লক্ষ্য করা যায় নি। সেকারণে অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে ইনটেনসিভ ভেন্টিলেশনে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা। ।

    কোনও রোগীকে বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশনে তখনই রাখা হয় যখন শ্বাসকষ্ট সাধারণ। তবে সৌমিত্র বাবুর ক্ষেত্রে মাত্রাতিরিক্ত শ্বাসকষ্ট হওয়াতে ইনটেনসিভ ভেন্টিলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশনে ফুসফুসে অক্সিজেন পাঠানো হলেও রোগীর শ্বাসপ্রশ্বাস পুরোপুরি যন্ত্রনির্ভর হয় না। হাসপাতাল সূত্রে যেটুকু জানা গিয়েছে, গত সোমবার রাতের দিকে প্রবীণ অভিনেতাকে সেই বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। তাঁকে পর্যবেক্ষণ রাখে ১২ জন চিকিৎসকের একটি বিশেষজ্ঞ দল। তখন ঠিক হয়েছিল, পরে প্রয়োজন হলে পুরোপুরি তাঁকে ভেন্টিলেটরে দেওয়া হতে পারে। কিন্তু মঙ্গলবার দুপুরেও পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় সৌমিত্রবাবুকে ইনটেনসিভ ভেন্টিলেশনে (পুরোপুরি যন্ত্রনির্ভর) রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা।

    আজ অর্থাত্‍ মঙ্গলবার সকালেই হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছিলো, প্রবীণ অভিনেতার সামান্য জ্বর আছে তবে উদ্বেগের মধ্যেই কিছুটা স্বস্তি দিয়ে জানানো হয়েছিল, সামগ্রিকভাবে সৌমিত্রবাবুর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়নি। কিন্তু ইনটেনসিভ ভেন্টিলেশনে থাকার কারণে সম্পুর্ণভাবে বিপদ মুক্ত নন তিনি।

    মূলত: সৌমিত্রবাবুর ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের চিন্তায় রেখেছে ঘুসঘুসে জ্বর। যা এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা যায় নি। একইসঙ্গে তাঁর শরীরের সোডিয়াম ও পটাশিয়ামের মাত্রা স্বাভাবিক নয়, সেখানেও বৈষম্য দেখতে পাওয়া গিয়েছে। তবে তা ওষুধের মাধ্যমে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনা যাবে বলে আশা করছেন চিকিৎসকরা। সোমবার তাঁর মস্তিষ্কের এমআরআই করা হয়েছে। তাতে আশঙ্কার কোনও খবর মেলেনি। মঙ্গলবারও তাঁর একাধিক পরীক্ষা করা হতে পারে বলে হাসপাতাল ও পরিবার সূত্রে খবর।

    উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর সৌমিত্রবাবুর করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে। পরদিনই তাঁকে দক্ষিণ কলকাতার বেলভিউতে ভরতি করা হয়। তারপর থেকেই সেই হাসপাতালেই আছেন উত্তম ও উত্তম পরবর্তী মঞ্চ ও চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি অভিনেতা। এরইমধ্যে শুক্রবার সৌমিত্রবাবুর শারীরিক অবস্থার আশঙ্কাজনক অবনতি হয়। মূত্রথলিতেও সংক্রমণ হয়েছে বলে জানানো হয়। পরে দ্বিতীয় প্লাজমা থেরাপির পর তাঁর শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। তাঁর স্বাস্থ্যন্নতির কামনায় সকলেই প্রার্থনা করছেন।

    আজ বিকেলে সামান্য হলেও উন্নতি হয়েছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার। মঙ্গলবার হাসপাতাল সূত্রে এমনই খবর মিলেছে। তারইমধ্যে প্রবীণ অভিনেতাকে দেখতে মঙ্গলবার দক্ষিণ কলকাতার ওই বেসরকারি হাসপাতালে যেতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, সৌমিত্রবাবুর চিকিৎসার যাবতীয় খরচ বহন করছে রাজ্য। প্রাথমিকভাবে পরিবারের তরফে চিকিৎসার যে অর্থ দেওয়া হয়েছিল, তা ইতিমধ্যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ফিরিয়ে দিয়েছে বলে সূত্রের খবর। 

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    আমায় ঘুগনি করে দাও না মা গো বেচবো পুজোর প্যান্ডেলে

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কয়েকদিন আগেই খড়্গপুরে একটি প্রশাসনিক বৈঠকে উপস্থিত হয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বেকার যুবক যুবতীদের কাজ...

    মঙ্গলে আলু চাষের সম্ভাবনা নিয়ে আশ্বস্ত করল পরীক্ষা

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রতিদিন বিভিন্ন নিত্য নতুন আবিষ্কার করছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। আর মহাকাশ বিজ্ঞানীদের চোখ যেদিকে রয়েছে তা হলো মঙ্গল...

    সম্পত্তি-বৃদ্ধি মামলায় সুপ্রিম কোর্টে ১৯ তৃণমূল নেতার স্বস্তি।

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : অভিযোগ ছিল ২০১১ থেকে তৃণমূলের ১৯ জন নেতা মন্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ বহুল হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সংক্রান্ত...

    পুজোর আবহে লাল হলুদ জার্সি উদ্বোধন

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চতুর্থীর সুবর্ন সন্ধায় বসেছে চাঁদের হাট। তারকা খচিত সন্ধায় লাল হলুদের জার্সি উদ্বোধন...

    চলে গেলেন সব থেকে বেশী ডার্বি ম্যাচ খেলানো ফিফা রেফারী সুমন্ত ঘোষ

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চলে গেলেন সবথেকে বেশিবার রেফারি হিসেবে ডার্বি ম্যাচ পরিচালনারও নজির সৃষ্টিকারী রেফারি সুমন্ত...