33 C
Kolkata
Sunday, April 2, 2023
More

    আজ ফিরহাদ হাকিম, মলয় ঘটকের সামনেই ইন্ডোর স্টেডিয়ামে চলল তান্ডব!

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: লকডাউন শুরুর পর থেকে ৯ মাস কেটে গিয়েছে। অস্থায়ী কর্মী হওয়াতে একটানা ২৭০ দিনের ও বেশি রোজগার বন্ধ এসএলও (‌সেল্‌ফ এমপ্লয়েড লেবার অর্গানাইজেশন)‌ শ্রমিকদের। আর আজ তাঁদের নিয়েই নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে বৈঠক দেকেছিল রাজ্যের শ্রম দপ্তর। আজ এই বৈঠকে ডাকার কারণ হিসেবে শ্রমিকরা ভেবেছিলেন তাদের এই দীর্ঘ সমস্যার সুরাহা হবে। কিন্তু সে বিষয়ে কোনও সরকারী ঘোষণা না হওয়াতে এদিন বৈঠক শেষে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন তারা। এমনকি পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও শ্রম দফতরের মন্ত্রী মলয় ঘটকের সামনেই এই বিক্ষোভ চলে।

    তবে বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণ ছিল না, মন্ত্রীদের সামনেই নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের ভেতরে চলে ভাঙচুর। চেয়ার ভেঙে , ফেস্টুন ছিঁড়ে স্টেডিয়ামের ভেতরেই বিক্ষোভ চলতে থাকে। এরপর পুলিশ আসতেই এদিন বিকেলে স্টেডিয়ামের সামনের রাস্তায় শয়ে শয়ে শ্রমিক অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হন। এমনকি কলকাতা পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিও হয় বলে তাদের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

    এই প্রসঙ্গে এক বিক্ষোভকারীর অভিযোগ “দীর্ঘ ৯ মাস আমাদের কোনও রোজগার নেই। আগে কমিশনের যা টাকা পেতাম তা দিয়ে সংসার চলত। কিন্তু লকডাউনের পর থেকে আমরা একটা টাকাও পাইনি। মলয় ঘটক আমাদের কথা দিয়েছিলেন যে এসএলও পরিবার ও অন্য শ্রমিকদের সঙ্গে আজকের বৈঠকে একটা সমাধানসূত্র বের হবে। কিন্তু তিনি এদিন দলের হয়ে, সরকারের হয়ে প্রচার করে গেলেন। আমাদের বেতন দেওয়ার কথাও বলা হয়েছিল। কিন্তু কিছুই হয়নি।”

    সূত্রের খবর, গোটা রাজ্যের যাঁরা সামাজিক সুরক্ষার ফর্ম ফিল আপ করেন ( মূলত: বিভিন্ন অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিক) শ্রম দপ্তর সেই শ্রমিকদেরই এদিন বৈঠক ডাকে। এদের কোনও বাধাধরা বেতন নেই। প্রতিটি ফর্ম ফিল আপ করে ২ টাকা করে কমিশন পেতেন তাঁরা। সেটাই ছিল তাদের রোজগার। কিন্তু লকডাউন চালুর পর এপ্রিল মাস থেকে সেটাও বন্ধ। ওই শ্রমিকদের এমনই অভিযোগ। বিক্ষোভরত শ্রমিকদের দাবি এদিনের বৈঠকে তাঁদের চাকরির ক্ষেত্রে বেতন কাঠামো ও সামাজিক সুরক্ষার কথা ঘোষণা করার কথা ছিল। কিন্তু অভিযোগ, তার কোনো কিছুই হয়নি।

    শ্রমিকদের কোনও দাবিদাওয়া না মানা হলে এর প্রতিবাদে এদিন উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নেতাজি ইন্ডোর চত্বর। মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বক্তব্য রেখে বেরিয়ে যাওয়ার পরই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। নেতাজি ইন্ডোরের ভেতরেও চেয়ার ছোড়াছুড়ি হয়। ভাঙচুর চলে। তাও মন্ত্রীদের সামনেই। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া তোরণ, হোর্ডিং, ফ্লেক্স ভেঙে ফেলেন বিক্ষোভকারীরা।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    জানেন বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশ কোনটি ? কোথায় দাঁড়িয়ে ভারত ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : পার ক্যাপিটা জিডিপি, জনস্বাস্থ্য, আয়ু, সামাজিক ন্যায়, যাপনের স্বাধীনতা এবং দুর্নীতিহীনতা-- এই একক গুলির...

    কেন্দীয় পুলিশে কয়েক হাজার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর। কারণ, কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করল সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স বা...

    আসন্ন IPL-এ কোন দলের অধিনায়ক কে হলেন ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কলকাতা নাইট রাইডার্স সোমবার তাদের দলের অধিনায়কের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ১০টি আইপিএল দলের...

    বাড়ল প্যান ও আধার সংযুক্তিকরণের সময়সীমা ! সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কেন্দ্রের তরফে আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল, চলতি মাসের মধ্যেই প্যান ও আধার লিংক করিয়ে...

    মোদীর লক্ষ্য ৪০০ পার ! বঙ্গে বিজেপির লক্ষ্য ২৫

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : দিল্লি লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করে দিয়েছে। আব কি বার ৪০০ পার। ২০২৪-এর লোকসভা ভোটে সারা...