18 C
Kolkata
Friday, December 9, 2022
More

    এবার অভিনবত্বে নজর কাড়বে কচুরিপানার “রাখী”

    মলয় দে, নদীয়া: রাখী পুর্ণিমা শুধুমাত্র ভাই বোনের পবিত্র বন্ধনকেই দৃঢ় করেনা সেই সাথে সাথে মানব-সম্প্রীতির বন্ধনও রাখী। যদিও একসময় রাখী নিছক নিয়মপালনের তাগা হিসেবে প্রচলিত ছিল। এরপর সময়ের সাথে সাথে মানুষের স্বাদ ও ভাবনার ওপর নির্ভর করে রাখীর রকমভেদ দেখতে পেয়েছি বাজারে। দুর্গা পূজা যেমন সাবেকিয়ানা থেকে বেরিয়ে থিমের জমকালো রঙ রোশনাইয়ে একটা নতুন শিল্পের জন্ম দিয়েছে বাংলায়, ঠিক তেমনি ক্ষুদ্র হলেও রাখী নির্মাণ কিন্তু এরকমই একটি থিম শিল্পের মধ্যে ক্রমশ আত্মীকৃত হয়ে গিয়েছে।

    যদিও এই লকডাউনের কারণে সকলকে কাজ দিতে পারিনি। আঞ্চলিক স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ১৪০ জন মেয়েদের মধ্যে মাত্র ৯ জন মেয়েকে নিয়েই আমরা এই কাজ করেছি।

    -স্বপন কুমার ভৌমিক , সভাপতি, মাজদিয়া ইকো ক্রাফট

    বেশ কিছু সময় ধরেই কেউ ফুল দিয়ে, কেউ পাট, কেউ দড়ি এমন কী পুঁথি ও প্লাস্টিকের রিবন ও মিনিয়েচার দিয়েও শিল্পীরা রাখীকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে। কিন্তু এবার এক অন্য রকমের উদ্ভাবন সৃষ্টির পরিচয় রাখলো নদীয়ার মাজদিয়ার মেয়েরা। জানলে অবাক হবেন যে তারা সাধারণ পুকুর ও বিলে দেখতে পাওয়া কচুরিপানার ফুল দিয়েই তারা রাখী বানিয়ে তাক লাগালো।

    এই বিষয়ে নদীয়ার মাজদিয়া ইকো ক্রাফটের সভাপতি স্বপন কুমার ভৌমিক জানান- ” আমাদের গ্রাম অঞ্চলে জঞ্জাল হিসেবে পরিচিত কচুরিপানা দিয়ে এর আগেও আমরা বহু শিল্পমূলক কাজ করেছি। কিন্তু এবারে মানুষের হাতের কবজিতে সেই শিল্পকে ধরণ করিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে ও আগামী রাখী পূর্ণিমাকে সামনে রেখে আমরা তৈরি করেছি কচুরিপানার ফুলের রাখী।

    তিনি আরও বলেন যে এই রাখী আমারা নদীয়া সহ সমগ্র পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জন্যে তৈরি করেছি এবং প্রায় সব যায়গায় পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি যাতে সকলেই এই আসন্ন পুজোর আগে একটু থিমের স্পর্শ পান।

    স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মেয়েরা কচুরিপানার রাখী তৈরি করছেন। ছবি-মলয় দে , দ্যা ক্যালকাটামিরর ব্যুরো।

    তিনি আক্ষেপ করে বলেন যে “যদিও এই লকডাউনের কারণে সকলকে কাজ দিতে পারিনি। আঞ্চলিক স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ১৪০ জন মেয়েদের মধ্যে মাত্র ৯ জন মেয়েকে নিয়েই আমরা এই কাজ করেছি। এই মহামারীর বাজারে অন্যান্য রাখীর মতই মানুষ এই ব্যতিক্রমি রাখীকে খুঁজে নেবে এটাই আমার বিশ্বাস”।

    নদীয়ার এই ব্যতিক্রমি রাখীর দাম ৫ টাকা থেকে কুড়ি টাকা পর্যন্ত। এই দাম এমন ভাবে রাখা হয়েছে যাতে এই লকডাউনের বাজারে কোন ভাই বা বোন তার প্রিয়জনকে এই রাখীর ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত করতে না পারেন। আমরা চাই আমাদের এই ক্ষুদ্রতম প্রয়াস মানুষের হাতে হাতে আরও সুন্দর হয়ে উঠুক।”

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় তৈরির আশঙ্কা বঙ্গোপসাগরে , কতটা প্রভাব বঙ্গে ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা বঙ্গোপসাগরে। ঘূর্ণিঝড় মান্দাস-র পূর্বাভাস দিচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা। তাহলে কি ফের ঝড়বৃষ্টির আশঙ্কা...

    হিমাচলে এগিয়ে পদ্ম , লড়াই দিচ্ছে কংগ্রেস ! বলছে সমীক্ষা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : হিমাচল প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন গত ১২ নভেম্বর সম্পন্ন হয়েছে। এরপর ৮ ডিসেম্বর তার ফলাফল...

    গুজরাটে মোদী সুনামি ! উত্থান আপের , বলছে বুথ ফেরত সমীক্ষা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সপ্তমবারও বিজেপি সরকার। মোদী-শাহের রাজ্যে এবারও ক্লিন স্যুইপ পেতে চলেছে BJP। বুথফেরত সমীক্ষায় তেমনই...

    অঘটনের বিশ্বকাপে এশিয়ান ঝড় , রোনাল্ডোর দেশকে হারাল দক্ষিণ কোরিয়া

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : পর্তুগাল: ১ (রিকার্ড হোর্তা) দক্ষিণ কোরিয়া: ২ (কিম ইয়ং গওন, হং...

    নজিরবিহীন ঘটনা , অশোকনগরে বৃদ্ধ দম্পতির ঘরে জন্ম নিল ফুটফুটে সন্তান

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : স্বামীর বয়স প্রায় ৭০ বছর আর তার স্ত্রীর বয়সও পঞ্চাশের বেশি। বৃদ্ধ এই দম্পতির...