31 C
Kolkata
Sunday, June 26, 2022
More

    এবার লোকাল ট্রেন চালুর প্রস্তুতি তুঙ্গে অপেক্ষা শুধু কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশের

    দ্য ক্যালকাটা মিরর: তাহলে কি শীঘ্রই চালু হতে চলেছে লোকাল ট্রেন? শহর ও শহরতলির প্লাটফর্মগুলির সাজসজ্জা কিন্তু তারই ইঙ্গিতবহ। গত সোমবার কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জারি হয়েছে আনলক ফোরের নির্দেশিকা। বিধি মেনে মেট্রোরেল চালুর কথা থাকলেও উল্লেখ নেই লোকাল ট্রেনের। কিন্তু মঙ্গলবার দিন লোকাল ট্রেনের বিভিন্ন স্টেশনে কিন্তু অন্য দৃশ্য দেখতে পাওয়া গেল।

    এদিন রেলস্টেশনে এসে দেখা গেল সব প্লাটফর্ম গুলিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বৃত্ত আঁকা প্রায় শেষ। বারাসাত জংশন সহ সম্পুর্ণ উত্তর চব্বিশ পরগনার চিত্রটা প্রায় একইরকম। এই তত্‍পরতা ইঙ্গিত করছে অদূর ভবিষ্যতেই চালু হতে চলেছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা।

    উল্লেখ্য, মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে সারাদেশব্যাপী লকডাউনের কারণে লোকাল ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। করোনা মোকাবেলায় কেন্দ্রের লোকাল ট্রেন বন্ধের সিদ্ধান্ত মানুষকে কার্যত বিপাকে ফেলেছে। এর পর মে মাস থেকে আনলক করা শুরু হলেও ভাইরাসের সংক্রমন রুখতে কেন্দ্র ও রাজ্য রেল বন্ধ করার সিদ্ধান্তেই অনড় থাকেন।

    ইতিমধ্যে রাজ্য কেন্দ্রের মেট্রো রেল চালনা কে সমর্থন করে জানিয়েছেন সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে যদি লোকাল ট্রেন চালানো হয় তাহলে রাজ্য সরকারের কোনো আপত্তি নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে এমত পরিস্থিতিতে রেল কর্তৃপক্ষ রাজ্যের ভাব ভুজতে পেরে নড়েচড়ে বসেছে। সেকারণে রেল বোর্ড পূর্ব রেলের শিয়ালদা-বনগাঁ শাখা এবং বারাসাত-হাসনাবাদ শাখা সহ একাধিক জায়গায় লোকাল ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। আর তাদের এই কর্মকাণ্ডের প্রমাণ মিলছে প্রতিটি স্টেশনেই।

    এখন প্ল্যাটফর্মে গেলেই দেদেখতে পাওয়া যাচ্ছে রেলকর্মীরা তুলি হাতে সামাজিক দূরত্ব রক্ষার জন্য সাদা বা হলুদ রঙের গোলাকার বৃত্ত আঁকার কাজে ব্যস্ত। শিয়ালদা থেকে বনগাঁ, বারাসাত থেকে হাসনাবাদ পর্যন্ত বিভিন্ন স্টেশনগুলিতে সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষের ক্যামেরাতে ধরা পড়েছে সেই চিত্র।

    রেলকর্মীরা তুলি হাতে বৃত্ত আঁকার কাজে ব্যস্ত। ছবি-দ্য ক্যালকাটা মিরর

    যদিও যারা বৃত্তাকার কাজে ব্যস্ত তাদের কাছে ট্রেন কবে চলবে তার সুস্পষ্ট নির্দেশিকা নেই। কিন্তু যে গুটিকয়েক মানুষ প্লাটফর্মে উপর দিয়ে যাতায়াত করছেন তারা বললেন এই বৃত্ত অদূর ভবিষ্যতে লোকাল ট্রেন চালু হওয়ারই ইঙ্গিতবাহী। কিন্তু এর মাঝেও মানুষের মধ্যে বিপরীতধর্মী ভাবনা কাজ করছে। একদল মানুষ বলছেন করোনা আবহে লোকাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত যথেষ্ট ভেবেচিন্তে নেওয়া উচিত। অন্যদিকে আরেকদল মানুষ বলছেন মানুষের মানুষের দুর্ভোগ ও ভোগান্তি কমবে লোকাল ট্রেন চালু হলেই।

    সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বৃত্ত আঁকা প্রায় শেষ। ছবি: দ্য ক্যালকাটা মিরর

    লোকাল ট্রেন চালু হলে আনলক ফোর স্টেজে খুলে যাওয়া বিভিন্ন কর্মস্থলে যেতে মানুষ সুবিধা বোধ করবেন। ইতিমধ্যেই মেট্রোরেল চালু হওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা হয়ে গেছে। স্বাভাবিকভাবেই লোকাল ট্রেন চলা এখন সময়ের অপেক্ষা। যদি সামাজিক দূরত্ব বিধি ও স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করে লোকাল ট্রেন চালু করা হয় তাহলে দূর দূরান্তের মানুষের আবার কাজে যাওয়া শুরু হবে যেমনটি ছিল আজ থেকে মাত্র ৫ মাস আগে।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    আগামী সোমবার খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সব স্কুল

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আগামী ২৭ জুন থেকে খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুল। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু...

    পুজোর বাকি ১০০ দিন ! অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় বাঙালি

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : পুজোর বাকি ১০০ দিন। এখন থেকেই পুজোর প্ল্যানিং ? এখনও ঢের বাকি ! না,...

    দুর্বল মৌসুমী বায়ু ! অনিশ্চিত বর্ষা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : মৌসুমি বায়ু ঢুকলেও দক্ষিণবঙ্গে দুর্বল হয়ে পড়ল। আগামী কয়েকদিন বিশেষ বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখছেন না...

    আরেকটা করোনা বিস্ফোরণের মুখে দাঁড়িয়ে রাজ্য ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : রাজ্যে ভয়াবহ আকার নিল করোনা। এক লাফে ৭০০ পার করল দৈনিক সংক্রমণ। বৃহস্পতিবার দৈনিক...

    এক অভিনব সাইকেল যাত্রা শুরু করলো সিভিক ভলেন্টিয়ার বিপ্লব দাস ।

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো :এক অভিনব সাইকেল যাত্রা শুরু করলো বিরাটির সিভিক ভলেন্টিয়ার বিপ্লব...