25 C
Kolkata
Saturday, February 4, 2023
More

    ল্যাব টেস্ট এর রিপোর্ট এ ভুল থাকলেই এবার থেকে টাকা ফেরত তাও ক্ষতির পরিমাণেই

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: বর্তমান সময়ে প্যাথলজিক্যাল রিপোর্ট ছাড়া কোনও ধরণের ট্রীটমেন্টই সম্পুর্ণ হয় না। কিন্তু এই রিপোর্ট এ একটি কমা বা নামের বানান ভুলের জন্য ‘ভুল চিকিৎসা’, এমনকী ‘মৃত্যু’রও ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি রাজ্য স্বাস্থ্য কমিশনে বেশ কয়েকটি ল্যাবরেটরি বা প্যাথলিজক্যাল সেন্টারের বিরুদ্ধে ভুল রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। তাই এই অব্যবস্থা রুখতে নড়ে চড়ে বসলো কমিশন। এই ভুল রিপোর্ট রুখতে বেশ কয়েকটি কড়া নির্দেশিকা জারি করেছে ওয়েস্ট বেঙ্গল ক্লিনিক্যাল এসট্যাব্লিশমেন্ট রেগুলেটরি কমিশন (WBCERC) বা স্বাস্থ্য কমিশন।

    কী বলা হয়েছে এই নির্দেশে? দেখা যাচ্ছে যে ল্যাবরেটরি বা প্যাথলিজক্যাল সেন্টারের ভুল রিপোর্টের জেরে কোনও রোগী যদি শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন বা কোন শারীরিক পরীক্ষা করানোর সময় যদি রোগী আঘাত পান তা হলে তার সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিতে হবে সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরি বা প্যাথলিজক্যাল সেন্টারকেই।
    এর পাশাপাশি সেই পরীক্ষা করানোর জন্য যে পরিমাণ অর্থ নেওয়া হয়েছে তার পুরোটাই ফেরত দিতে হবে রোগীকে। প্যাথলজিস্টদের প্রতি স্বাস্থ্য কমিশনের নির্দেশ, এবার থেকে প্রত্যেকটি রিপোর্ট যথাযথভাবে যাচাই করে তাতে সরাসরি স্বাক্ষর করতে হবে। রিপোর্টে স্ট্যাম্প সাইন বা ডিজিটাল স্বাক্ষর না করারই নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য কমিশন।

    এই প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য কমিশনের চেয়ারম্যান কলকাতা হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অসীমকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘‌আমাদের মনে হয়, কোনও টেস্টের রিপোর্টে সমস্যা থাকলে প্রথমে সংশ্লিষ্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উচিত রোগীকে সেই টেস্টের খরচ ফিরিয়ে দেওয়া। এর পর ওই রোগীকে বিনামূল্যে সেই টেস্ট আবার করিয়ে দিতে হবে। আর যদি রোগী অন্যত্র টেস্ট করান সে ক্ষেত্রে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্তব্য হওয়া উচিত রোগীর আগের ও পরের টেস্টের খরচ ফেরত দেওয়া। এতে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সদিচ্ছাও প্রকাশ পাবে।’‌

    তিনি আরও জানান, ‘‌কোনও রিপোর্টে দুই ধরনের ভুল থাকতে পারে। এক, টাইপোগ্রাফিক্যাল এবং দুই, পরীক্ষা সংক্রান্ত ভুল। দেখা গেছে টাইপোগ্রাফিক্যাল ভুল আবার তিন রকমের হয়। এক, সংখ্যা সংক্রান্ত গন্ডগোল। যেথানে পরীক্ষা ঠিকঠাকভাবে হয়েছে কিন্তু ডেটা এন্ট্রি অপারেটর সেই রিপোর্ট লেখার সময় কোনও সংখ্যা টাইপ করতে গিয়ে ভুল করে ফেলেছেন।’‌ দুই, অক্ষর সংক্রান্ত, যেখানে রোগীর নাম ভুল লেখা হয়, আর তিন, মিস প্লেসিং। যেখানে রিপোর্ট এর সংখ্যা ভুল করে ওপরে নিচে ছাপা হয়ে যায়।

    সেক্ষেত্রে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অসীমকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়, ‘‌কোনও রিপোর্টে যদি রোগীর নাম বা কোনও সংখ্যা লেখায় গলদ থাকে এবং সেই ভুল রিপোর্টের ভিত্তিতে চিকিৎসা হয় তবে তাতে প্রভূত ক্ষতি হতে পারে। এমন ধরনের ঘটনা ঘটলে ভুল রিপোর্টের জেরে রোগী যদি কোনওভাবে আঘাত পায় তবে তার সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিতে হবে সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরি বা প্যাথলিজক্যাল সেন্টারকে।’‌

    তিনি এও জানান যে, কোনও রোগীকে সঠিক রিপোর্ট দেওয়া হচ্ছে কিনা সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখা উচিত। রিপোর্টে স্বাক্ষর করার সময় সাবধান থাকতে হবে প্যাথলজিস্টকেও। ডিজিটালি নয়, রিপোর্ট দু’‌বার ভাল করে দেখে নিয়ে সরাসরি স্বাক্ষর করতে হবে তাঁকে। কোনও রিপোর্টে যদি টাইপ সংক্রান্ত ভুলভ্রান্তি থাকে তবে সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরি বা প্যাথলিজক্যাল সেন্টারকে জরিমানা করা উচিত। ভুল রিপোর্টে জেরে কতটা ক্ষতি হতে পারে বা হয়েছে তার ওপর নির্ভর করবে জরিমানার পরিমাণও।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    কত চালে কত ঝলমলে বাঙালি ত্বক! হ্যাঁ, রূপচর্চায় ‘চাল’!

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো :- সৌন্দর্য এমন একটি জিনিস যা সবারই কাম্য। মানুষ জানে না যে তারা তাদের ত্বককে উজ্জ্বল করতে কতটা...

    দাঁতের ক্যাভেটি দূর করতে এই উপায় ম্যাজিকের মত কাজ করে!

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো:- শক্তিশালী দাঁত আমাদের গর্ব এবং আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এগুলো ছাড়া আমরা আমাদের প্রিয় খাবার খাওয়ার কথা...

    লক্ষ্মী-মনোজ জুটিতে ফের ট্রফি! বিজয় হাজারের পর এবার রঞ্জি জয়?

    ধোনির রাজ্যের বিরুদ্ধে ৯ উইকেটে জিতে রঞ্জির সেমিফাইনালে মনোজ তিওয়ারিররা। সেমিফাইনালে বাংলার সামনে পণ্ডিতের মধ্যপ্রদেশ। উল্লেখ্য রঞ্জি কোয়ার্টার ফাইনালে ঝাড়খণ্ডকে ৯ উইকেটে...

    বিমান বন্দরে তিতাস ও হৃষিতা, ক্রীড়ামন্ত্রী ও সিএবি সভাপতির উপস্থিতিতে সম্বর্ধনা

    মহিলাদের অনূর্ধ্ব-১৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতার পরে গতকাল শহরে ফিরলেন দুই বাঙালি বিশ্বজয়ী চুঁচুড়ার তিতাস সাধু ও হাওড়ার হৃষিতা বসু। আর এক বিশ্বজয়ী...

    লক্ষ্মীর বাংলা কার্যত সেমিফাইনালে! ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে জয়,শুধু সময়ের অপেক্ষা?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: আকাশ শাহবাজদের দাপটে বিধ্বস্ত বিরাটরা। রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে ৮১ রান করলেন শাহবাজ আমেদ। ১২০ বলের...