22 C
Kolkata
Tuesday, January 25, 2022
More

    স্বাধীনতার আগে খেলার মাঠের দুই ‘‌১৫ আগস্ট’ – নির্মলকুমার সাহা‌

    ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ভারত স্বাধীন হয়। কাকতালীয় হলেও, এর ১১ বছর আগেই, ১৯৩৬ সালের ১৫ আগস্ট বার্লিনে রূপ সিং-‌ধ্যানচাঁদরা যেন আগাম স্বাধীনতা-‌উৎসব পালন করে ফেলেছিলেন। সেবার বার্লিনে অবিভক্ত ভারতের অলিম্পিক হকিতে শেষ সোনা জয়। অলিম্পিক হকিতে সোনা জয়ের হ্যাটট্রিকও। ১৯২৮, ১৯৩২-‌এর পর ১৯৩৬ সালেও সোনা জিতে হ্যাটট্রিক করেছিল ভারত। যে দলের অধিনায়ক ছিলেন ‘‌হকির জাদুকর’‌ ধ্যানচাঁদ।


    ফাইনালে অ্যাডলফ হিটলারের সামনেই জার্মানিকে ৮‌-‌১ গোলে হারিয়েছিল ভারত। গোল করেছিলেন ধ্যানচাঁদ (‌৩)‌, দারা (‌২)‌, রূপ সিং, ট্যাপসেল, জাফর। সোনার হ্যাটট্রিকের সেই ফাইনালে ভারতের হয়ে খেলেছিলেন অ্যালেন, ট্যাপসেল, মহম্মদ হুসেন, নিমাল, কালেন, গালিবার্ডি, সাহাবুদ্দিন, দারা, ধ্যানচাঁদ, রূপ সিং, জাফর। ফাইনাল হয়েছিল ১৫ আগস্ট। যদিও সূচিতে ফাইনালের দিন ঠিক ছিল ১৪ আগস্ট। তাহলে কী করে চলে গেল ১৫ আগস্ট?‌ কেন ওই সূচি বদল?‌ ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ভারতের সেমিফাইনাল খেলা হয়েছিল ১২ আগস্ট। ভারত জিতেছিল ১০-‌০ গোলে। একদিন বিশ্রামের পর ১৪ আগস্ট ছিল ফাইনাল। প্রতিপক্ষ জার্মানি। কিন্তু স্টেডিয়ামে গিয়ে ধ্যানচাঁদরা দেখেন প্রবল বৃষ্টিতে মাঠ জলে তলিয়ে গিয়েছে। ভারতের ম্যানেজার জগন্নাথ সংগঠকদের অনুরোধ করেন, ফাইনাল ম্যাচটি একদিন পিছিয়ে দিতে। সেই অনুরোধ মেনে ফাইনাল হয়েছিল একদিন পর ১৫ আগস্ট। অবশ্য বিকেলে নয়, সকালে। কাকতালীয় হলেও এটাই সত্যি, ১১ বছর পর ১৯৪৭ সালে ওই দিনই ভারত পেয়েছিল স্বাধীনতা।


    সেই সকালে ফাইনালের আগে একটি দুঃসাহসিক কাজ করেছিলেন ভারতের সহকারি ম্যানেজার পঙ্কজ গুপ্ত। ড্রেসিং রুমে খেলোয়াড়রা মাঠে নামার জন্য তৈরি হচ্ছেন। তখনই পঙ্কজ গুপ্ত বের করেন জাতীয় কংগ্রেসের একটি তেরঙা ঝান্ডা। খেলোয়াড়রা মাঠে নামেন ওই তেরঙা ঝান্ডায় হাত ছুঁইয়ে, শপথ নিয়ে। আত্মজীবনী ‘‌গোল’‌-‌এ ধ্যানচাঁদ লিখেছেন, ‘On the morning of August 15, we all met in the dressing room. All of us were wondering as to what will be the result on that day. Never before had we ever doubted the outcome of a game. Suddenly Mr. Gupta produced a Congress tricolour. Reverently, we saluted and prayed and marched into the field.‌

    পূর্ণচন্দ্র ব্যানার্জি


    (‌‌‌‌‌ফাইনালে ভারতের গোলদাতাদের তালিকা নিয়ে অবশ্য বিভ্রান্তি রয়েছে। এই লেখায় যে তালিকাটি দেওয়া হয়েছে সেটি ধ্যানচাঁদের আত্মজীবনী ‘‌গোল’‌ থেকে নেওয়া। বার্লিন অলিম্পিকে ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন এম এন মাসুদ। দেশে ফিরে বার্লিনের সোনা জয় নিয়ে তিনি একটি বই (‌The World’s Hockey Champions 1936)‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌ ‌লিখেছিলেন। সেখানেও তালিকাটি এরকমই। কিন্তু ‘‌দ্য হিন্দু’‌র ম্যাচ রিপোর্টে আছে ভারতের হয়ে গোল করেছিলেন ধ্যানচাঁদ (‌৩)‌, দারা (‌২)‌, জাফর (‌২)‌, ট্যাপসেল। কিছু জায়গায় আবার অন্যরকমও আছে।)‌
    **** ‌‌‌‌‌
    ভারত স্বাধীন হওয়ার ২৭ বছর আগের খেলার মাঠের আরও এক ১৫ আগস্ট। সেটা অবশ্য সারা ভারতের নয়, খেলার মাঠে বাংলা ও বাঙালির গর্বের দিন। বাঙালির অলিম্পিক অভিযান শুরু ১০১ বছর আগে, ১৯২০ সালে অ্যান্টোয়ার্পে। ঘটনাচক্রে সেটাও ছিল ১৫ আগস্ট। সেবারই প্রথম সরকারিভাবে অলিম্পিকে ভারতীয় দল পাঠানো হয়েছিল। শুধু অ্যাথলেটিক্স ও কুস্তিতে। ৪ জনের অ্যাথলেটিক্স দলে ছিলেন বাঙালি পূর্ণচন্দ্র ব্যানার্জি। পুরো নাম পূর্ণচন্দ্র ব্যানার্জি হলেও ভারতের ক্রীড়াজগতে পরিচিত ছিলেন পি সি ব্যানার্জি নামেই। আর ঘনিষ্ঠমহলে পুঁইয়া ব্যানার্জি। শুধু অ্যাথলেটিক্সে নয়, আজীবন মোহনবাগানী পূর্ণচন্দ্রর দাপট ছিল অন্য অনেক খেলায়ও। মোহনবাগানের জুনিয়র দলের হয়ে ফুটবল খেলেছেন। বিলিয়ার্ড, রাগবি, গলফ, টেনিস, সাঁতার, অশ্বারোহণেও নানা প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সাফল্য পেয়েছেন। তা যাই হোক, অ্যাথলেটিক্স দলে বাকি ৩ জন ছিলেন:‌ পি ডি চোগলে, এইচ ডি কাইকাডি, এস ভি ডাতার। কুস্তি দলে ছিলেন ডি ডি সিন্দে, কে টি নাভালে। অ্যান্টোয়ার্পে গেলেও কাইকাডি অবশ্য প্রতিযোগিতায় নামেননি।


    সেবার অলিম্পিকে অ্যাথলেটিক্স হয়েছিল ১৫-‌২৩ আগস্ট। প্রথম দিনই ছিল পূর্ণচন্দ্রর ইভেন্ট ১০০ মিটার দৌড়ের হিট। অলিম্পিকের লড়াইয়ে বাঙালির প্রথম অংশ নিতে নামা সেই ১৫ আগস্ট। হিটে পূর্ণচন্দ্র ছিলেন ২ নম্বর গ্রুপে। ওই গ্রুপে ছিলেন পাঁচজন। পূর্ণচন্দ্র শেষ করেছিলেন সবার শেষে। অলিম্পিকে পূর্ণচন্দ্র অংশ নিয়েছিলেন আরও একটি ইভেন্টে, ৪০০ মিটার দৌড়ে। হিটে ৮ নম্বর গ্রুপে ৪ জনের মধ্যে চতুর্থ (‌সময় ৫৩.‌১ সেকেন্ড)। আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতার অভাবে দু’‌টি ইভেন্টেই হিট থেকে বিদায় নিলেও নাম তুলে ফেলেছিলেন ইতিহাসের পাতায়। সেবার অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মার্চ পাস্টে ভারতীয় দলের পতাকা বাহক ছিলেন প্রথম বাঙালি অলিম্পিয়ান পূর্ণচন্দ্র ব্যানার্জি।


    (‌প্রথম ছবি:‌ বার্লিন অলিম্পিকে সোনাজয়ী ভারতীয় হকি দল।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    দেশে একধাক্কায় অনেকটা কমল করোনা সংক্রমন , বাড়ছে সুস্থতা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : স্বস্তি জাগিয়ে একধাক্কায় অনেকটা কমল দেশের দৈনিক সংক্রমণ। গত কয়েকদিন ধরে নিম্নমুখী দেশের করোনা...

    কাপড়ের মাস্ক পুরোপুরি আটকাতে পারবে না করোনা সংক্রমন , বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা ঠেকাতে মাস্ক আবশ্যক। একথা প্রথম দিন থেকে বলে আসছেন বিশেষজ্ঞরা। উৎসবের দিনে বেশিরভাগ...

    পিছু ছাড়ছে না শীতের বৃষ্টি , তবে পরশু থেকে হাওয়া বদল

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : শীতেও পিছু ছাড়ছে না বৃষ্টি। মঙ্গলবারও মেঘলা আকাশ সঙ্গে দু-এক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে...

    রাজ্যে আরও কমল করোনা সংক্রমন , ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : একটু একটু করে সুস্থতার পথে বাংলা। এক ধাক্কায় অনেকটা কমল রাজ্যের সংক্রমণ। গত ২৪...

    কাদের ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি ? কি বলছে WHO

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ডেল্টার তুলনায় কম ক্ষতিকর, উপসর্গ মৃদু হলেও কিন্তু ডেল্টার তুলনায় কয়েক গুণ দ্রুত ছড়াচ্ছে...