29 C
Kolkata
Saturday, September 30, 2023
More

    চন্দ্রযান অ্যাপোলোর তোলা ছবির ভিত্তিতে, চাঁদে বরফের সন্ধান পেলেন নাসার বিজ্ঞানীরা

    দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরোঃ চাঁদে জলের অস্তিত্ব রয়েছে সে সম্পর্কে আমরা আগেই জেনেছিলাম। তবে এবার নতুন করে নাসার বিজ্ঞানীরা চাঁদে, সূর্যের আলোয় আলোকিত অংশে ওয়াটার আইস বা জলীয় বরফ খুঁজে পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ছবি অনুযায়ী এই বরফ অনেক বেশি রয়েছে চাঁদের মেরুর দিকে। কিছুদিন আগে প্রকাশিত এক গবেষণা পত্রে নাসা জানিয়েছিল যে এই ওয়াটার আইস লুনার নাইটে গঠিত হয় কিন্তু তা সূর্যের আলো পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই নষ্ট হয়ে যায়। যদিও নতুন তথ্য অনুযায়ী সূর্যের আলোকে পরাজিত করে চাঁদের ডে সাইডে ওয়াটার আইসের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া গেছে, যা গবেষকদের মনে আশা জাগাচ্ছে।

    চাঁদে ছায়াময়তার কারণে চাঁদের গায়ে অবস্থিত গর্তগুলো ছোটো ছোটো শীতল গহ্বর সৃষ্টি করে, যা লুনার ডে টাইমেও ওয়াটার আইস গঠন করতে সাহায্য করে।নাসার জেট প্রপালশন ল্যাবরেটরীর এক্সপার্টরা ১৯৬৯-১৯৭২ পর্যন্ত অ্যাপোলোর চাঁদে অবতরণের পর থেকে পাঠানো ছবি গুলিকে পরীক্ষা করে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন। চন্দ্রপৃষ্ঠের এই গর্তগুলিতে স্থায়ীভাবে ওয়াটার আইস খুঁজে পাওয়ায় বিজ্ঞানীদের আশা এরপর চাঁদে অনেক বেশি সময় অবস্থান করা সম্ভব হবে। কারণ যদি সেই বরফকে প্রক্রিয়াকরণের মাধ্যমে জলে পরিণত করা সম্ভব হয় তাহলে পৃথিবী থেকে জল বহনের প্রয়োজনীয়তা অনেকখানি হ্রাস পাবে। ভবিষ্যতে চন্দ্র অভিযানে নাসা এই ধরনের এলাকাগুলি অন্বেষণ করবে বলেও জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

    বিজ্ঞানী বিজর্ন ডেভিডসন এবং সোনা হোসেইনির যৌথ গবেষণা অনুযায়ী, যেহেতু চন্দ্রপৃষ্ঠে বায়ুমণ্ডল নেই তাই শীতল অংশটি ভীষণ শীতল প্রায় -৩৫০° ফারেনহাইট এবং উত্তপ্ত অংশে ২৪০° ফারেনহাইট তাপ মাত্রা থাকে। এই গবেষণায় চন্দ্রপৃষ্ঠে জলের গতিবিধি সম্পর্কেও আলোকপাত করা হয়েছে। যখন শীতল পৃষ্ঠগুলি সূর্যালোকের সংস্পর্শে আসে, তখন জলের কণাগুলি চাঁদের এক্সোস্ফিয়ারে ফিরে আসতে সক্ষম হয় এবং ওই অণুগুলি চন্দ্রপৃষ্ঠের ঠান্ডা, ছায়াযুক্ত অঞ্চলে পুনরায় জমা হয়। এইভাবে, এক্সোস্ফিয়ার চন্দ্রপৃষ্ঠে জলের অস্তিত্ব বজায় রাখতে সহায়ক মাধ্যম হিসাবে কাজ করে। এই গবেষণার ফলাফল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ তা গবেষকদের চন্দ্রপৃষ্ঠে দীর্ঘমেয়াদী থাকার সুযোগ করে দেবে এবং অন্যান্য গবেষণাকে আরও অনেক বেশি সহজ করে দেবে।

    লেখা- তানিয়া তুস সাবা,

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    জানেন বিশ্ব কাঁপানো গোয়েন্দা সংস্থা কোন গুলি ? জানুন অজানা তথ্য

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : কোন দেশের গোয়েন্দা সংস্থা সবচেয়ে দুর্ধর্ষ-এমন কৌতূহল অনেকের মধ্যে আছে। তবে ইন্টারনেটের বিভিন্ন...

    ১০ সেকেন্ডের টর্নেডো ! তছনছ হাবড়ার কুমড়া গ্রাম

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : হাবড়ায় ১০ সেকেন্ডের সাইক্লোন। নিমেষে লণ্ডভণ্ড গোটা এলাকা। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঝড়ের...

    কতদিন বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গে ? জানাল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ঝাড়খণ্ডের উপর তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে বিগত ক’দিন ধরে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে...

    ‘‌ফেলো কড়ি , পাও পঞ্চায়েতের পদ’‌ ! বিস্ফোরক দাবি তৃণমূল বিধায়কের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : এবার বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক ইদ্রিশ আলি। পঞ্চায়েত নির্বাচন মিটে গেলেও...

    বড় সিদ্ধান্ত মোদী সরকারের ! গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট হতে চলেছে ‘বার্থ সার্টিফিকেট’

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : এবার থেকে বার্থ সার্টিফিকেটই হতে চলেছে সবেচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট। কারণ ১ অক্টোবর থেকেই...