27 C
Kolkata
Friday, May 27, 2022
More

    আজ দুবাইতে রোহিত-বিরাট ডুয়েল, জিততে মরিয়া দুই দলই

    একদিকে চারবার আইপিএল জয়ী মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা, অপরদিকে বেঙ্গালুরু জার্সিতে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ডুয়েল বোধহয় একেই বলে। ক্রিকেটফ্যানেদের জন্যেও আজকের লড়াই যে এক মহারণ তার আলাদা করে বলে দেবার প্রয়োজন নেই। গতম্যাচেই কলকাতাকে ৪৯ রানের বড় মার্জিনে পরাস্ত করে জয়যাত্রা শুরু করেছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ৮০ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। প্রথম ম্যাচে চেন্নাইয়ের কাছে পরাজিত হবার পর জয়ের সরণিতে ফিরে আসা তাদের পক্ষে ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া দ্বিতীয় ম্যাচে দলগত প্রদর্শনও ছিল যথেষ্ট ভালো। রান পেয়েছিলেন সূর্যকুমার যাদব, সৌরভ তিওয়ারিরা আর বোলিংয়ে তাদের যোগ্য সঙ্গত দিয়েছিলেন ট্রেন্ট বোল্ট,জেমস প্যাটিনসন, যশপ্রীত বুমরাহ এবং রাহুল চাহার। প্রথম ম্যাচের দুর্বলতাগুলি অনেকটাই ঢাকা পড়ে গেছে মুম্বাইয়ের দ্বিতীয় ম্যাচে। তাদের চিন্তার কারন হিসাবে একমাত্র উঠে আসে হার্দিক পান্ডের নাম।কোমরের চোট সারিয়ে ফেরার পর এখনো একটি ম্যাচেও বোলিং করতে দেখা যায়নি তাকে। ব্যাটিংয়েও দুটি ম্যাচে তেমন স্বচ্ছন্দ হতে পারেননি হার্দিক। সেক্ষেত্রে এখন তাকে মুম্বাই দলের উইক লিংক হিসাবে চিহ্নিত করা যেতেই পারে।

    অপরপক্ষে বিরাট কোহলির আর.সি.বি-র ক্ষেত্রে চিন্তার অবকাশ অনেক বেশি। দুটি ম্যাচই রান পাননি তারকা ব্যাটসম্যান বিরাট। গত ম্যাচে দুটি সহজ ক্যাচও পড়েছে তার হাত থেকে। প্রথম ম্যাচে দেবদূত পাডিকালের দেওয়া অসাধারণ অর্ধশত রানের দৌলতে সহজ জয় পেয়েছিল তারা। কিন্তু গত ম্যাচে যেভাবে ভেঙে পড়েছে ব্যাঙ্গালুরুর ব্যাটিং তা আবার গত বছরের দুঃস্বপ্নের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে ক্রিকেটপ্রেমীদের। বিদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে অ্যারন ফিঞ্চও নিজের নামের প্রতি তেমন সুবিচার করতে পারেননি। দুটি ম্যাচেই একমাত্র নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান ছিলেন সেই এ.বি. ডিভিলিয়ার্স। এরইমধ্যে বিরাটের রান না পাওয়া আরো বেশি ভাবিয়ে তুলেছে দলকে। গত ম্যাচে পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ২০৬ রান তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত কুড়ি ওভারও খেলতে পারেনি আর.সি.বি।শুধু ব্যাটিং নয় চিন্তার অবকাশ রয়েছে বোলিং নিয়েও। যুবেন্দ্র চাহাল এবং অলরাউন্ডার শিবম দুবে ছাড়া বল হাতে তেমন একটা সফল হতে পারেননি কেউই। বোলিং আক্রমনকে আরো শক্ত পোক্ত করতেই দক্ষিণ আফ্রিকার অভিজ্ঞ ফাস্ট বোলার ডেল স্টেনকে ধরে রেখেছিল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।কিন্তু গত দু ম্যাচে স্টেনের প্রদর্শনও তেমন উল্লেখযোগ্য নয়।ভারতীয় পেস বোলারদের মধ্যে নবদীপ সাইনি কিছুটা আশা জাগালেও ধারাবাহিকতার অভাব ভোগাচ্ছে তাকে। একই কথা বলা চলে উমেশ যাদবের ক্ষেত্রেও। তাই সর্বোপরি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে পরাস্ত করতে গেলে দলের ভারসাম্য নিয়ে অনেকটাই ভাবতে হবে বিরাটকে। তাছাড়া একথা মনে রাখা দরকার যে মুম্বাইয়ের বোলিং যথেষ্ট যথেষ্ট শক্তিশালী। সেক্ষেত্রে কোহলি ও তার দল কিভাবে ট্রেন্ট বোল্ট, জেমস প্যাটিনসন ও যশপ্রীত বুমরাহের ত্রিফলা আক্রমনকে সামলান সেটিও একটি দেখার বিষয়।

    রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (সম্ভাব্য দল)ঃ দেবদূত পাডিকাল , অ্যারন ফিঞ্চ,বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), এ.বি ডিভিলিয়ার্স, যশুয়া ফিলিপি (উইকেটকিপার)/মঈন আলি, ওয়াশিংটন সুন্দর, শিবম দুবে, ডেল স্টেন, নবদীপ সাইনি,উমেশ যাদব, যুবেন্দ্র চাহাল।

    মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স (সম্ভাব্য দল)ঃ

    রোহিত শর্মা (অধিনায়ক),কুইন্টন ডি কক (উইকেট কিপার),সূর্য কুমার যাদব, সৌরভ তিওয়ারি, হার্দিক পান্ডে,কুনাল পান্ডে, কিরণ পোলার্ড, ট্রেন্ট বোল্ট, জেমস প্যাটিনসন,রহুল চাহার, যশপ্রীত বুমরাহ।

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    করোনা আবহে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ‘টম্যাটো ফ্লু’ , কি কি সতর্কতা অবলম্বন করবেন ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : এতদিন গ্রামের শিশুরা সংক্রমিত হত। খাস কলকাতার খুদেরাও আক্রান্ত হচ্ছে ভাইরাস ঘটিত ‘হ্যান্ড, ফুট...

    যারা “আইন” মেনে চলে তাদের জন্যই গ্রাহ্য মৌলিক অধিকার , পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টের

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : সাম্প্রতিককালে সামাজিক মাধ‌্যমে আপত্তিকর পোস্ট গুলিও ‘বাকস্বাধীনতার’ অধিকারের আড়ালে আশ্রয় নিয়ে বাঁচার চেষ্টা করে।...

    আইনি স্বীকৃতি পেলেন যৌনকর্মীরা , দেহ ব্যবসাকে পেশা হিসাবে স্বীকৃতি দিল সুপ্রিম কোর্ট

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : দীর্ঘ লড়াইয়ের পর আইনি স্বীকৃতি পেলেন যৌনকর্মীরা। দেহ ব্যবসাকে আর পাঁচটা সাধারণ কাজের মতো...

    অতীতে এলিয়েন বার্তা এসেছিল পৃথিবীতে , গবেষণায় চাঞ্চল্যকর তথ্য

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রায় অর্ধশতক আগে এলিয়েন বার্তা এসেছিল পৃথিবীতে। বার্তার স্থায়িত্ব ছিল মাত্র ৭২ সেকেন্ড। বিগ...

    ফের বেসরকারিকরণের পথে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ! তালিকায় আর কোন কোন সংস্থা ?

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ফের বেসরকারিকরণের পথে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা। এবার হিন্দুস্তান জিঙ্ক। দেশের বৃহত্তম ইন্টিগ্রেটেড জিঙ্ক প্রস্তুতকারী...