16 C
Kolkata
Monday, January 17, 2022
More

    ঐহিকা মেতে আছেন হ্যারি পটারে – নির্মলকুমার সাহা

    করোনাকালে প্রথম তিন মাস ঘরেই আটকে ছিলেন। তারপর বিধি মেনে মাঝেমধ্যে প্র‌্যাকটিসে যেতে শুরু করেন পাড়ার ক্লাব, যেখান থেকে উত্থান সেই নৈহাটি ইউথ অ্যাসোসিয়েশনে। কোচ মিহির ঘোষও আসতেন। কিছুটা অনুশীলন সেরে নিচ্ছিলেন। এভাবেও বেশিদিন চলেনি। নৈহাটিতে, বিশেষ করে ক্লাবের কাছাকাছি অঞ্চলে করোনা দেখা দেওয়ায় আতঙ্ক বেড়ে যায়। ফলে আবার বন্ধ হয়ে যায় ক্লাবের দরজা। এখন আবার মাঝেমধ্যে যাচ্ছেন, তবে রোজ নয়। সেটাও আবার যেদিন যান, একবেলা, সুরক্ষাবিধি মেনে। আর কলকাতায় যেখানে প্র‌্যাকটিস করেন কোচ সৌভিক রায়ের কাছে, সেই ভবানীপুর ব্যায়াম সঙ্ঘে তো লকডাউনের শুরু থেকেই আর আসাই হয়নি। এভাবেই সাড়ে ৬ মাস কেটে গেল কমনওয়েলথ টেবিল টেনিস চ্যাম্পিয়ন ঐহিকা মুখার্জির। বিরক্তিকর পরিস্থিতিতেও বাড়িতে আটকে থাকা ঐহিকা নানা ভাবে চেষ্টা চালাচ্ছেন নিজেকে ফিট রাখার, মানসিক দিক দিয়ে ভাল থাকার। কীভাবে কাটাচ্ছেন সময়?‌ ফিজিক্যাল ট্রেনিং, মোবাইলে খেলা ও টুকটাক সিনেমা দেখা, গল্পের বই পড়া। মেতে থাকছেন প্রিয় হ্যারি পটার নিয়ে। 

    করোনা-‌আতঙ্ক শুরু হওয়ার আগের একবছর মিহির ঘোষ ও সৌভিক রায়ের ছাত্রী ঐহিকার কেটেছে খুবই ভাল। সাফল্য আর সাফল্য। এগোচ্ছিলেন দ্রুত গতিতে। ‌কটকে কমনওয়েলথ টেবিল টেনিসে জোড়া সোনা। সিঙ্গলস ও দলগত। নেপালে সাউথ এশিয়ান গেমসে জিতেছেন চারটি পদক। মহিলাদের দলগত সোনার সঙ্গে তিনটি রুপো, সিঙ্গলস, ডাবলস ও মিক্সড ডাবলসে। হায়দরাবাদে জাতীয় প্রতিযোগিতায় সিঙ্গলসে তৃতীয়। লকডাউন শুরুর আগেই খেলে এসেছেন পর্তুগালে অলিম্পিকের দলগত যোগ্যতা অর্জনের প্রতিযোগিতায়। এছাড়াও সাফল্য পেয়েছেন ভারতে নানা প্রতিযোগিতায়। কিন্তু করোনা-‌আতঙ্ক তৈরি করেছে বড় প্রতিবন্ধকতা। খেলতে যাওয়ার কথা ছিল দলগত বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে। সেটা আর হয়নি। এছাড়াও দেশে-‌বিদেশে গত ৬ মাসে আরও কিছু প্রতিযোগিতায় ঐহিকাকে খেলতে দেখা যেত। যার জন্য খুব ভালভাবে প্রস্তুতিও নিয়ে রেখেছিলেন। কিন্তু সেই প্রস্তুতি কোনও দাম পেল না।

    সাধারণতঃ নৈহাটির বাড়িতে থাকলে মিহির ঘোষের কাছে নৈহাটি ইউথ অ্যাসোসিয়েশনেই প্র‌্যাকটিস করেন। আর কলকাতায় অনুশীলন করেন সৌভিক রায়ের কাছে ভবানীপুর ব্যায়াম সঙ্ঘে। এজন্য কলকাতায় ডোভার লেনে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কোয়ার্টার্সে থাকেন। এখন এসবই বন্ধ। নৈহাটির বাড়িতে আটকে থাকতে আর ভাল লাগছে না। ঐহিকা এখন দিন গুনছেন কবে মুক্তি পাবেন এই অসহ্য পরিস্থিতি থেকে, আবার টেবিল টেনিস বোর্ডে ঝড় তুলবেন। ‌

    Related Posts

    Comments

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    সেরা পছন্দ

    অনেকদিন পর রাজ্যে কমল করোনা সংক্রমন , উদ্বেগের কারণ কলকাতা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : গত কয়েকদিন পর সামান্য কমল করোনা সংক্রমণ। কমল মৃত্যুর সংখ্যাও। গত তিনদিন ধরে বাংলায়...

    প্রয়াত নাট্যজগতের অন্যতম বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব শাঁওলি মিত্র !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : প্রয়াত বাংলার অন্যতম বিখ্যাত নাট্যকার শাঁওলি মিত্র। আজ দুপুর তিনটের সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ...

    দীর্ঘদিন স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার প্রয়োজন নেই , বললেন বিশ্ব ব্যাংকের কর্তা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : করোনা থেকে শিশুদের রক্ষা করতে দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ স্কুল, কলেজ...

    ওমিক্রনের উপসর্গের সাথে অন্য ভ্যারিয়েন্টের পার্থক্য কি ? দেখুন কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ওমিক্রনের ফলে দ্রুত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। ওমিক্রনে সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে বটে। কিন্তু...

    আর ৭ দিন নয় , এবার ৫ দিন হতে পারে হোম আইসোলেশনের মেয়াদ !

    দ্যা ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : আর ৭ দিন নয়, এবার থেকে করোনায় আক্রান্ত হলে ৫ দিন হোম আইসোলেশনে থাকলে...