তবে কি এবার MBA পড়ার দর কমতে চলেছে বাজারে!

0
37

দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: অনেক ছাত্রছাত্রী স্বপ্ন দেখেন কলেজ শেষ করে এমবিএ পড়বার, তবে এবারে সেই পরিস্থিতি কিছুটা হলেও বদলেছে। প্রতি বছর ভারতের আইআইএম পরিচালিত প্রতিষ্ঠানগুলি কতৃক ক্যাট (CAT) বা কমন এডমিশন টেস্ট পরীক্ষার আয়োজন করা হয়ে থাকে। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তবেই ছাত্র-ছাত্রীরা এমবিএ কোর্স পড়ার সুযোগ পান।

প্রতি বছরের মত এবছরেও কমন এডমিশন টেস্ট বা ক্যাট পরীক্ষার আবেদনের শেষ তারিখ ঘোষনা করা হয়েছিল় ১৬’ই সেপ্টেম্বর কিন্তু দেশ জুড়ে চলা অতিমারী পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে পরে তা বাড়িয়ে করা হয় ২৩’শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। কিন্তু শুধু আবেদনের দিন বদল নয়, করোনা’র আঁচ সরাসরি প্রভাব ফেলেছে, ছাত্র ছাত্রীদের এমবিএ পড়ার স্বপ্নেও। একটি সমীক্ষা বলছে গতবছর তুলনায় এবছরে মোট আবেদনকারী সংখ্যা কমে গিয়েছে পাঁচ শতাংশেরও বেশি।

আবেদনের সময়সীমা বাড়লেও এখনো পর্যন্ত আবেদনপত্রের সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ২.৩ লক্ষে। যেখানে গত বছরে ক্যাট পরীক্ষার জন্য আবেদন জমা পড়েছিল ২.৪৪ লক্ষ। উল্লেখ্য গত কয়েক বছরের সমীক্ষা অনুযায়ী ২0১৮ সালে ক্যাট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২.৪১ লক্ষ, ২০১৭ সালে ২.৩১, ২০১৬ সালে ২.৩২ লক্ষ এবং ২০১৫ সালে ২.১৮ লক্ষের মতোন পরীক্ষার্থী এই পরীক্ষায় বসেন।

এ বিষয়ে আমেদাবাদের আইআইএম প্রতিষ্ঠানের তরফে বলা হয়, “এবছর ভাইরাস সংক্রমণের কারণে কমবেশি সকলেরই আর্থিক অবস্থা, চাকরির অবস্থাও খুব খারাপ। সব সামলে পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে তা এখনই সেটা স্পষ্ট নয়। তাই এবছর এমবিএ পড়ার জন্য ছাত্রছাত্রীরা গড়রাজি।”

উল্লেখ্য, করোনার প্রভাবে আগেই টালমাটাল হয়েছিল সর্বভারতীয় শিক্ষাব্যবস্থা, দেশজুড়ে ‘আনলক ফোর’ চালু হলেও তার রেশে কবে যে শিক্ষা ব্যবস্থা স্বাভাবিক অবস্থাতে ফিরবে,তা নিয়ে চিন্তায় পড়ুয়া থেকে শিক্ষামহল উভয়ই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here