ইতিহাস গড়ার লক্ষ্যে নামার আগে সতর্ক জেসন হোল্ডার

0
21

দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগে তাঁর ছাত্রদের এই বার্তাই দিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ ফিল সিমন্স। সাউদাম্পটনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তন টেস্ট ম্যাচটিতে ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে সিমন্সের ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আজ থেকে শুরু ওল্ড ট্রাফোর্ড টেস্ট জিতলে তো একরকম ইতিহাসই গড়বে ক্যারিবীয়রা। সেই ১৯৮৮ সালের পরে ইংল্যান্ডের মাটিতে যে আর টেস্ট সিরিজ জেতেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই ম্যাচ জিতলে তিন ম্যাচ সিরিজে ২–০ ব্যবধানে এগিয়ে যাবে জেসন হোল্ডাররা।

সিমন্স জানেন প্রথম টেস্টের সাফল্যের কথা আসবেই খেলোয়াড়দের মনে। ক্যারিবীয় কোচের ভয় তাতে আবার না হিতে বিপরীত হয়, খেলোয়াড়েরা না আবার আত্মতুষ্টিতে ভুগতে শুরু করেন। তাই স্পষ্টই বলে দিলেন, যা হয়েছে, তা নিয়ে না ভেবে ভবিষ্যতের দিকে তাকাতে, ‘ওটা আমাদের জন্য দারুণ একটা অনুভূতি ছিলো। কারণ, ইংল্যান্ডের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে রান তাড়া করে জেতা সহজ নয়। এখন আমাদের আত্মতুষ্টিতে বাঁধ দিয়ে প্রথম টেস্টের আগে যা করেছি, তাই করতে হবে। ওই টেস্ট এখন ইতিহাস। বৃহস্পতিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত কী করব, তা নিয়ে এখন আমাদের ভাবতে হবে।’

‘ইতিহাস’ নিয়ে কথা বললেন জেসন হোল্ডারও। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন ইতিহাস নিয়ে আপাতত ভাবছেন না তাঁরা, ‘আমি ছেলেদের কাছে ইতিহাসের কোনো প্রসঙ্গই তুলিনি। প্রথম টেস্ট ম্যাচটি জিতে পাজলের একটি অংশই মাত্র মিলিয়েছি। আমাদের আরও দুটি ম্যাচ খেলতে হবে। আগ বাড়িয়ে কিছু ভাবার দরকার নেই।’

তবে হোল্ডার স্বীকার করলেন সাউদাম্পটনে তাঁদের সাফল্য করোনার এই সময়ে একটু হলেও হাসি ফুটিয়েছে ক্যারিবীয় মানুষের মুখে, ‘এই কোভিড পুরো বিশ্বকেই মনমরা করে ফেলেছে। আমি জানি ক্রিকেটের মতো কিছুই শুধু ক্যারিবিয়ানের মানুষকে এক সুতোয় বাঁধতে পারে। এটা জেনে সত্যিই ভালো লাগছে যে এখন পর্যন্ত ক্যারিবিয়ানের অনেকে মানুষকে একটু হলেও খুশি করতে পেরেছি। তাঁদের মন আরও বেশি পেতে হলের সিরিজ জিততে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here