জিমে যেতে চান জেনে নিন বডিবিল্ডিংয়ের আসল রহস্য

0
32

দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো: প্রথম কথাই হচ্ছে বডিবিল্ডিং কী। ডিকশনারিতে বডিবিল্ডিং কথাটির অর্থ লেখা আছে, খাবার এবং ব্যায়ামের মাধ্যমে শরীর  নির্মান করা, বিশেষত প্রতিযোগিতামূলক খেলায় প্রদর্শনের জন্য।

অর্থাৎ, এখানে দুটো অংশ আছে।

প্রথম অংশ যেখানে একজন মানুষ তার খাবার নিয়ন্ত্রণ করে এবং ব্যায়াম করে তার ইচ্ছামত বডি তৈরি করবেন, যেরকম তার পছন্দ সেরকম। এই ধরণের বডি তৈরি করে তিনি কোন প্রতিযোগিতায় যাবেন না। বলা যাক এটি তার নিজের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য, ফিটনেস বাড়ানোর জন্য।

দ্বিতিয় অংশ এই ধরণের বডি বিল্ডিং এ একজন ব্যক্তি বডি নির্মান করেন খাবার এবং এক্সারসাইজের মাধ্যমে, কিন্তু তিনি এটি করেন প্রতিযোগিতায় প্রদর্শনের জন্য ও জেতার জন্য। এটি একটি খেলা। যেমন ক্রিকেট একটি খেলা যেখানে পেশাদার খেলোয়াড়েরা পরিশ্রম করে নিজেদের তৈরি করেন প্রতিযোগিতায় জেতার জন্য।

আমি বডিবিল্ডিং এর ক্ষেত্রে প্রথম অংশে ফোকাস করতে চাই। কারণ প্রতিযোগিতামূলক বডিবিল্ডিং এ আমাদের সবার  আগ্রহ থাকে না । বেশির ভাগ মানুষেরই আগ্রহ এস্থেটিক বডি বিল্ডিং এ।

এস্থেটিক বডি বিল্ডিং এর প্রধান লক্ষ্য থাকে সিমেট্রিক্যাল একটি বডি নির্মান করা। সিমেট্রিক্যাল  বলতে বুঝায় যেখানে এক পাশ অন্য পাশের সমান।

প্রাণীজগতে সিমেট্রিকে দেখা হয় সৌন্দর্য হিসেবে। সেজন্য মানুষও সিমেট্রিকে সুন্দর মনে করে।

আপনার এক হাতের বাইসেপ যদি আরেক হাতের বাইসেপের চাইতে ছোট হয় তাহলে তা দেখতে ভালো দেখাবে না। দুই অংশ সমান বা প্রায় সমান হতে হবে।

এস্থেটিক বডি বিল্ডিং এর ক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই চাইবেন না খুব বেশি মাসল তৈরি করতে। আপনি সেটুকু মাসল তৈরি করতে চাইবেন যেটুকু হলে আপনাকে দেখতে ভালো দেখায়। বেশি মাসল মানেই দেখতে সুন্দর এমন অবশ্যই নয়। এই কথাটি খেয়াল রাখতে হবে।

বডি বিল্ডিং এর ক্ষেত্রে জেনেটিকস একটি গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে। আপনার জেনেটিক ভিত্তি যেমনই হোক না কেন অবশ্যই আপনি ভালো বডি তৈরি করতে পারবেন। কিন্তু আপনার বাইসেপের শেপ কীরকম হবে, মাসল গেইন কী রকম হবে ইত্যাদির অনেক অংশই আপনার জিনের উপর নির্ভর করে। দুইজনের মাসলের আকৃতি একইরকম নাও হতে পারে। এছাড়াও কতটুকু মাসলে আপনাকে কেমন দেখাবে তা নির্ভর করে অনেকটা আপনার স্কেলেটাল আকার-আকৃতির উপরে।

তাই ঠিক অন্যের মতো মাসল তৈরি করতে যাওয়া ঠিক পন্থা নয়। কারণ অন্য আরেকজনের মাসল আকৃতি ঐরকম হয়ত তার জেনেটিক কারণে, আপনার মাসল আকৃতি ভিন্ন আপনার জিনগত কারণে। হয়ত তার স্কেলেটাল গঠন আপনার স্কেলেটাল গঠনের চাইতে ভিন্ন।

আপনার যে অবস্থা আছে সেখান থেকেই উন্নত করার চেষ্টা করতে হবে। অন্যদের দেখে অনুপ্রেরণা পেতে পারেন। কিন্তু মিলিয়ে মিলিয়ে তুলনা করতে হলে তা আপনার হতাশা বাড়াতে পারে।

যেকোন কাজে সবাইকে খুশি করতে যাওয়া সবচাইতে ভুল পথ।

আপনি আপনার বডি যখন তৈরি করবেন তখন যারা দেখবে তাদের সবাই এর প্রশংসা করবে না। কেউ বলবে আপনার বাইসেপ আরো বেশি হলে ভালো হতো, কেই বলবে আপনার চেস্ট  আরো বড় হলে ভালো হতো, কেউ বলবে আপনার সিক্স প্যাক ভালো লাগছে না।

আর্নল্ড শোয়ার্জনেগারকেও অনেকে বলতো, তোমার মতো বিদঘুটে বডি আমি কখনো চাইব না।

শোয়ার্জনেগার হেসে জবাব দিতেন, তা তুমি করতে কখনো পারবেও না।

মাসল অলঙ্কারের মতো বিষয় নয় যে আপনি বাজার থেকে কিনে আনলেন। মাসল একটি জীবন্ত বাস্তবতা ও আপনার অংশ। যেটুকু মাসল আপনার থাক, তার জন্য পর্যাপ্ত খেতে হবে। বেশি মাসল হলে বেশি খাবার আপনার লাগবে, কারণ মাসল বেশি ক্যালরি খরচ করে।

সুতরাং, আপনি ততটুকু মাসলই চাইবেন যতটুকু আপনি মেইন্টেইন করতে পারেন। কারণ মেইন্টেইন করতে না পারলে সেই মাসল হারিয়ে যাবে। আর মেইন্টেইন করতে আপনার যদি খারাপ লাগে বা কষ্ট হয় তাহলে এতো মাসলের দরকার কি?

এস্থেটিক বডি বিল্ডিং এর কথা হলো, সেইরকম মাসল তৈরি করুন যাতে আপনাকে দেখতে ভালো লাগে, আপনি যেগুলি মেন্টেইন করতে পারবেন ও যে মাসল আপনার ফিটনেস ও স্ট্রেংথ বাড়াবে।

অর্থাৎ, শক্তি অর্জন ছাড়া মাসল অর্জন সম্ভব নয়। মাসলের সাথে সাথে স্ট্রেংথও যেন বাড়ে। এই কথাটি অভারল ফিটনেস বাড়াতে জোর দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here