ব্ল্যাকউডের দাপটে ইংল্যান্ড বধ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

0
20

দ্য ক্যালকাটা মিরর ব্যুরো : 199 রানের সামান্য পুঁজি নিয়েই সাউদাম্পটনে জয়ের হাসি হাসতে চেয়েছিল ইংল্যান্ড। লাঞ্চের আগে জোফরা আর্চারের আগুনে স্পেল থ্রী লায়ন্সদের স্বপ্নও দেখিয়েছিল l

কিন্তু জার্মেইন ব্ল্যাকউডের লড়াকু  ইনিংস এবং অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের দৃঢ়তায় সাউথাম্পটনে শেষ হাসিটা ক্যারিবিয়ানরাই হাসলো। ইংল্যান্ডকে 4 উইকেটে হারিয়ে সিরিজ শুরু করল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

আর্চারের ভয়ংকর প্রথম স্পেলটা সামলে নিয়ে দুবার জীবন পাওয়া ব্ল্যাকউড প্রায় একাই টানলেন দলকে। জয় থেকে মাত্র 11 রান দূরে এসে জেমস অ্যান্ডারসনের হাতে ধরা পড়েন 95 রানে। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরিটা একটুর জন্য হাতছাড়া হলেও ততক্ষনে দলকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন  ব্ল্যাকউড।

অধিনায়ক জেসন হোল্ডারকে (14*) সঙ্গে নিয়ে দলকে লক্ষ্যে পৌঁছে দেন ইনিংসের শুরুতে আর্চারের বলে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়া জন ক্যাম্পবেল (4*)। 

এই ম্যাচে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করা হোল্ডারের কাছে এ জয় বাকি সব জয়ের চেয়ে আলাদা, ‘দল হিসেবে এটা আমাদের সেরা জয়গুলোর একটি।’ আগের দিন প্রভাব বিস্তার করা ইংল্যান্ডের ইনিংসে ধ্বস নেমেছিল হঠাৎ করে। 3 উইকেটে 249 রান তোলা দলটি কিনা 30 রানেই 5 উইকেট হারিয়ে বসে! সেটাই জয়টা সহজ করে দিয়েছে উইন্ডিজের। হোল্ডারের চোখে তাই চতুর্থ দিনটাই টেস্টের সেরা, ‘আমার কাছে সেরা দিন ছিল গতকাল। খুব কঠিন, পরিশ্রমের দিন ছিল। বোলাররা সবটুকু উজাড় করে  দিয়েছে। যখনই কাউকে বল করতে বলেছি, তারা এসে নিজেদের নিংড়ে দিয়েছে।’

ওদিকে জো রুটের অনুপস্থিতিতে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেওয়া বেন স্টোকস প্রথম ইনিংসে মাত্র 204 রানে গুটিয়ে যাওয়াকেই ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে দেখছেন, ‘ফের একবার মাঠে ফিরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পেরে খুব ভালো লাগছে। এটা অন্যরকম এক অভিজ্ঞতা। প্রথম ইনিংসে আরও বেশি রান পেলে ভালো লাগত। আমরা বেশ ভালো অবস্থানে ছিলাম, কিন্তু নিজেদের ইনিংসটাকে কাজে লাগাতে পারিনি।’

দ্বিতীয় ইনিংসে 75 রানে 5 উইকেটসহ ম্যাচে 9 উইকেট নেওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ ফাস্ট বোলার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল হয়েছেন ম্যাচের সেরা l

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here